অর্থ ব্যয়ে অসচ্ছতা: বাংলাদেশ ফুটবলে ফিফার বরাদ্দ বন্ধ

305

অর্থ ব্যয়ে স্বচ্ছতার অভাবের অভিযোগে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের অনুদান বন্ধ করে দিয়েছে ফিফা। অডিট ও আর্থিক লেনদেনের প্রক্রিয়ায় সন্তুষ্ট নয় সংস্থাটি। এ বছর তিন মাস পেরিয়ে গেলেও এখনো কোনো অর্থ ছাড় হয়নি। এ নিয়ে আগামীকাল মঙ্গলবার ফিফার সঙ্গে সভায় বসবে বাফুফে।

দেশের ফুটবল কার্যক্রম গতিশীল রাখতে বড় অংকের অর্থ যোগান দেয় ফিফা। প্রতি বছর বরাদ্দ প্রায় সাড়ে চার লাখ ডলার। বাংলাদেশি টাকায় যা প্রায় চার কোটি। কিন্তু ২০২১-এর প্রথম কোয়ার্টারে এখনো কোনো টাকা পায়নি বাফুফে। নাখোশ ফিফা ৩০ মার্চ এ বিষয়ে ফুটবল ফেডারেশনকে চিঠি দিয়েছে।

কিন্তু কেন? আর্থিক লেনদেনের প্রক্রিয়া আর অডিটে অসন্তুষ্ট ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা। এমন ঘটনা নতুন নয় ফেডারেশনের জন্য, কিন্তু এবার প্রেক্ষাপট ভিন্ন। কঠোর ফিফা অর্থ ছাড় না করার সিদ্ধান্তে অনড়। আপাতত ফিফার পর্যালোচনা বাফুফের অর্থ বিভাগকে ঘিরে। বিব্রত কমিটির চেয়ারম্যান সালাম মুর্শেদী।

অর্থ বিভাগের কর্মকর্তাদের উপর সন্তুষ্ট নন সিনিয়র সহসভাপতি। বিশেষ করে প্রধান অর্থ কর্মকর্তা আবু হোসেনকে ব্যর্থ বলছেন তিনি। ইতোমধ্যে করাণ দর্শানোর নোটিশও দেয়া হয়েছে তাকে। এর আগেও দুর্নীতি দমন কমিশন তলব করেছিল তাকে।

পুরো পরিস্থিতি নিয়ে মঙ্গলবার ফিফার সঙ্গে বাফুফের ভার্চুয়াল সভা। নিজেদের অবস্থান তুলে ধরবে ফেডারেশন।

ফিফার সাথে সভা শেষে ফেডারেশনের অর্থ বিভাগে এবার পরিবর্তনের আভাস দিয়েছেন সালাম মুর্শেদীর। দেশের একটি বেসরকারি টেলিভিশনকে এমনটাই জানিয়েছেন তিনি।

অর্থের যোগান বন্ধ হয়ে যাওয়ায়, বাড়ছে বাফুফের দেনা। কোটি টাকার উপর বিল বয়েকা।

নিউজ হান্ট/আরকে