আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম পাননি ডিপজল-এখলাস মোল্লা

69

ঢাকা-১৪ আসনের উপ-নির্বাচন উপলক্ষে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনতে চেয়েছিলেন চলচ্চিত্র অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল এবং দলটির নেতা এখলাস উদ্দিন মোল্লা। কিন্তু তাদের কেউই দলীয় ফরম কিনতে পারেননি। আওয়ামী লীগ অথবা দলের কোনো অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনে থাকার বিষয়ে কোনো তথ্য-প্রমাণ উপস্থাপন করতে না পারায় মনোনয়নপত্র দেওয়া হয়নি তাদের।

গতকাল মঙ্গলবার (৮ জুন) ফরম কিনতে গিয়ে ব্যর্থ হয়েছেন তারা।

দলীয় সূত্রে অবশ্য জানা গেছে, আওয়ামী লীগ তাদের কাছে মনোনয়ন ফরম বিক্রি করেনি। গতকাল মঙ্গলবার ফরম নিতে গেলেও তাদের অতীত রাজনৈতিক ইতিহাস ও বিতর্কিত কর্মকাণ্ডে যুক্ত থাকার কারণে দলীয় মনোনয়ন ফরম দেওয়া হয়নি। বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান।

অন্যদিকে, আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া এখলাস উদ্দিন মোল্লাহ ও ডিপজলের কাছে মনোনয়ন ফরম বিক্রি না করার ব্যাপারে বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ একটি বিশেষ ক্রাইটেরিয়া মেনে ফরম বিক্রি করে। তাদের বিষয়টি সেই ক্রাইটেরিয়ার সঙ্গে মেলেনি বলেই তাদের কাছে মনোনয়ন ফরম বিক্রি করা হয়নি।

জানা যায়, ঢাকা-১৪ আসনের উপনির্বাচনে প্রার্থী হতে এখলাস উদ্দিন মোল্লা তার সহকর্মীদের নিয়ে মঙ্গলবার আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করতে আসেন। এসময় মনোনয়ন বিতরণ কমিটির সদস্যরা এখলাসউদ্দিন মোল্লার আওয়ামী লীগ বা অন্য সহযোগী সংগঠনের প্রাথমিক সদস্য ফরম পূরণ করেছেন কী না জানতে চান। এখলাসউদ্দিন মোল্লার কাছে এই সংক্রান্ত কাগজপত্র দেখতে চান সংশ্লিষ্টরা।

জানা যায়, মনোনয়নপত্র বিতরণকারীদের কোনো কাগজপত্র দেখতে পারেননি এখলাসউদ্দিন মোল্লা। তাই দলের নিয়মানুযায়ী তার কাছে মনোনয়নপত্র বিক্রি করা হয়নি। মনোনয়নপত্র না পেয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডি রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে বের হয়ে যান তিনি।

আরও জানা যায়, এখলাস উদ্দিন মোল্লা যখন দলীয় মনোনয়ন ফরম কিনতে না পেরে বেরিয়ে যাচ্ছিলেন তখন বাইরেই অপেক্ষা করছিলেন মনোনয়ন প্রত্যাশী চলচ্চিত্র অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল। এখলাস উদ্দিন মোল্লার ফর্ম কিনতে না পারার কারণ জানতে পেরে ডিপজলও চলে যান।

এই আসনের এমপি ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আসলামুল হক গত ৪ এপ্রিল মারা যান। ইতিমধ্যে আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়েছে।

ঢাকা-১৪ ছাড়াও সিলেট-৩, কুমিল্লা-৫ আসনের উপ-নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন ফরম গত ৪ জুন থেকে বিক্রি শুরু হয়েছে, চলবে আগামী ১০ জুন পর্যন্ত। সকাল ১১টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত মনোনয়ন সংগ্রহ ও জমা দিতে পারবে মনোনয়ন প্রত্যাশীরা।

নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, শূন্য হওয়া তিন আসনের উপনির্বাচনে মনোনয়ন পত্র জমার শেষ তারিখ ১৫ জুন। ১৭ জুন যাচাই-বাছাইয়ের পর ২৩ জুন পর্যন্ত মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন। আওয়ামী লীগ ১৪ জুলাই ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

নিউজ হান্ট/আরকে

পূর্ববর্তী নিবন্ধনতুন দরিদ্রের হিসাব মানেন না অর্থমন্ত্রী
পরবর্তী নিবন্ধমৃত্যু কমেছে, শনাক্ত বেড়েছে