আনভীরের আগাম জামিন আবেদনের শুনানি আজ

12

মোসারাত জাহান মুনিয়া নামে এক তরুণীর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় দায়ের করা মামলার আসামি বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সায়েম সোবহান আনভীর হাইকোর্টে আগাম জামিনের শুনানি আজ অনুষ্ঠিত হবে।

আজ বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) জামিন আবেদনটির ওপর বিচারপতি মামুনুন রহমান ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চে শুনানি হবে। এজন্য মামলাটি হাইকোর্টের কার্যতালিকায় ১৪ নম্বর ক্রমিকে রাখা হয়েছে।

গত ২৬ এপ্রিল সন্ধ্যায় গুলশানের ১২০ নম্বর সড়কের ১৯ নম্বর বাসার একটি ফ্ল্যাট থেকে মুনিয়ার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় মুনিয়ার বড় বোন নুসরাত জাহান তানিয়া বাদী হয়ে বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি সায়েম সোবহান আনভীরের বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ এনে একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, সায়েম সোবহানের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল মুনিয়ার। প্রতিমাসে এক লাখ টাকা ভাড়ার বিনিময়ে সায়েম সোবহান মুনিয়াকে ওই ফ্ল্যাটে রেখেছিল। আনভীর নিয়মিত ওই বাসায় যাতায়াত করতো। তারা স্বামী-স্ত্রীর মতো করে থাকতো।

মুনিয়ার বোন অভিযোগ করেছেন, তার বোনকে বিয়ের কথা বলে ওই ফ্ল্যাটে রেখেছিল। একটি ছবি ফেসবুকে দেওয়াকে কেন্দ্র করে সায়েম সোবহান তার বোনের ওপর ক্ষিপ্ত হয়। তাদের মনে হচ্ছে, মুনিয়া আত্মহত্যা করেনি। তাকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে।

মুনিয়ার মৃত্যুর ঘটনায় আলোচনায় এসেছেন বিতর্কিত হুইপপুত্র শারুন চৌধুরীও। মুনিয়ার কিছু কথোপকথনের স্ক্রিনশট সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। সেখানে শারুনের সঙ্গে তাকে আলাপ করতে দেখা গেছে। এ বিষয়ে শারুনকে ইতিমধ্যে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

জিজ্ঞাসাবাদের বিষয়টি স্বীকার করে শারুন সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘আমার কাছে যা জানতে চাওয়া হয়েছে বলেছি।’ কে তাকে ফোন করে এসব জানতে চেয়েছেন, তা তিনি বলতে রাজি হননি।

শারুন সরকারদলীয় হুইপ ও চট্টগ্রামের সাংসদ সামশুল হক চৌধুরীর ছেলে।

নিউজ হান্ট/এনএইচ

পূর্ববর্তী নিবন্ধভর্তি পরীক্ষা পেছাচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
পরবর্তী নিবন্ধআরমানিটোলায় অগ্নিকাণ্ড: চলে গেলেন আশিকুর, লাইফ সাপোর্টে স্ত্রী