ইফতারের জন্য খুলে দেওয়া হল চার্চের গেট

14

করোনাভাইরাসের কারণে নানা বিধিনিষেধের মধ্যে আছেন স্পেনের মানুষ। বিধিনিষেধের কারণে এই রমজানে বাড়তি সমস্যায় পড়েছেন মুসলিম সম্প্রদায়ের লোকজন। তবে তাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন অন্যরা।

মুসলিমরা যাতে একটু বড় জায়গায় খোলামেলাভাবে ইফতার ও প্রার্থনা করতে পারে, সেজন্য চার্চের গেট খুলে দেওয়া হয়েছে। আর এই কাজটা করেছেন স্পেনের ঐতিহ্যবাহী রাজ্য বার্সেলোনার লোকজন।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রতিদিন সন্ধায় ৫০-৬০ জন মুসলিম, যাদের অনেকে আবার গৃহহীন, তারা শতবর্ষী পুরোনো সান্তা আনা চার্চে ইফতার করছেন। তাদের জন্য বাড়িতে তৈরি খাবার পরিবেশন করেন স্থানীয় খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের মানুষ।

২৭ বছরের মরোক্কান তরুণ হাফিড ওউবরাহাম বলেন, ‘আমরা সবাই সমান, আপনি যদি ক্যাথলিক বা অন্য কোনও ধর্মের হন এবং আমি মুসলিম, তাতে কোনো সমস্যা নাই। আমরা সবাই ভাইয়ের মতো এবং আমাদের অবশ্যই একে অপরকে সাহায্য করতে হবে।’

কাতালান অ্যাসোসিয়েশন অফ মরোক্কান উইমেনের সভাপতি ফৌজিয়া চাতি শহরে ইফতারের সমাবেশ করার ব্যবস্থা করতেন, তবে খাওয়ার সময় ভালো খোলামেলা এবং দূরত্ব বজায় রাখা যায় এমন বিকল্প স্থান খুঁজতে তাকে বাধ্য হতে হয়েছিল।

এসময় তিনি তিনি সান্তা আন্না সানচেজে জায়গা পেয়ে যান। এই সভা পরে নাগরিক সহাবস্থানের প্রতীক হিসাবে দাঁড়িয়ে গেছে।

চাতি বলেন, ‘জনগণ খুব খুশি যে মুসলমানরা একটি ক্যাথলিক গির্জায় ইফতার করতে পারে, কারণ ধর্ম আমাদের আলাদা করতে নয়, আমাদের ঐক্যবদ্ধ করার কাজ করে।’

নিউজ হান্ট/আরকে

পূর্ববর্তী নিবন্ধশ্বাসকষ্ট বাড়ায় সিসিইউতে খালেদা জিয়া
পরবর্তী নিবন্ধএখনো নিয়ন্ত্রণে আসেনি সুন্দরবনের আগুন