ইসরায়েলের বিপক্ষে বড় জয় রোনালদোদের

6

ফিফা আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচের প্রথমটিতে স্পেনের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছিল পর্তুগাল। তার পরের ম্যাচেই ইসরায়েলকে উড়িয়ে ইউরো ২০২০ আসরের প্রস্তুতি সারল ফের্নান্দো সান্তোসের দল। লিসবনের এস্তাদিও জোসে আল্ভালাদে স্টেডিয়ামে বুধবার রাতে দ্বিতীয় ও শেষ প্রস্তুতি ম্যাচে ৪-০ গোলে জিতেছে ইউরোর গতবারের চ্যাম্পিয়নরা।

ম্যাচের শুরু থেকে পর্তুগাল ইসরায়েলকে চেপে ধরে। প্রথম মিনিটেই একটি সুযোগ পান রোনালদো। তবে শট নেন গোলরক্ষক বরাবর। ষোড়শ মিনিটে ফের্নান্দেসের শট ঠেকান ইসরায়েলের গোলরক্ষক।

বিরতির আগে তিন মিনিটের মধ্যে দুই গোল করে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ পুরোপুরি মুঠোয় নেয় পর্তুগাল। ৪২তম মিনিটে ডান দিকে থেকে কানসেলোর পাসে ডান পায়ের নিচু শটে ঠিকানা খুঁজে নেন ফের্নান্দেস।

পরের গোলেও অবদান রাখেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের এই মিডফিল্ডার। তার পাসে ছয় গজ বক্সের কোণা থেকে রোনালদোর বাঁ পায়ের শট গোলরক্ষকের পায়ে লেগে জালে জড়ায়।

আন্তর্জাতিক ফুটবলে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা রোনালদোর ১৭৪ ম্যাচে গোল হলো ১০৪টি। আর পাঁচটি হলে ইরানের আলি দাইয়ের গড়া ১০৯ গোলের রেকর্ড স্পর্শ করবেন পাঁচবারের বর্ষসেরা এই ফুটবলার।

৭২তম মিনিটে রোনালদোকে তুলে নেন কোচ সান্তোস। শেষ দিকে পাঁচ মিনিটের মধ্যে আরও দুই গোল করে স্বাগতিকরা।

নির্ধারিত সময়ের চার মিনিট বাকি থাকতে ডি-বক্সে একজনকে কাটিয়ে বাঁ পায়ের শটে চমৎকার গোল করেন কানসেলো। যোগ করা সময়ে ডি-বক্সের বাইরে থেকে জোরালো শটে বল জালে পাঠিয়ে বড় জয় নিশ্চিত করেন ফের্নান্দেস।

আগামী মঙ্গলবার হাঙ্গেরির বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ইউরোর শিরোপা ধরে রাখার অভিযান শুরু করবে পর্তুগাল। ‘এফ’ গ্রুপে তাদের অন্য দুই প্রতিপক্ষ বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স ও জার্মানি।

নিউজ হান্ট/ইস

পূর্ববর্তী নিবন্ধমুম্বাইয়ে ধসে পড়লো চারতলা বাড়ি, নিহত ১১
পরবর্তী নিবন্ধনিয়মিতদের নিয়েই কোপায় শক্তিশালী দল ব্রাজিলের