ঈদে গতবারের চেয়ে ৬ হাজার কোটি টাকার কম নতুন নোট

33

প্রতিবছরই ঈদের সময় নতুন টাকার চাহিদা বাড়ে। করোনা মহামারির মধ্যে সে কথা মাথায় রেখেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। গ্রাহকদের বাড়তি এ চাহিদার কথা বিবেচনায় নিয়ে আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ১৪ হাজার কোটি টাকার নতুন নোট বাজারে ছাড়ছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নতুন নোটের মধ্যে রয়েছে ১০, ২০, ৫০, ১০০, ২০০ এবং ৫০০ টাকার নোট।

আজ সোমবার (৩ মে) গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সিরাজুল ইসলাম।

তবে গত বছরের তুলনায় ৬ হাজার কোটি টাকার কম নতুন নোট বাজারে আসছে। আগের মতো সমপরিমাণ পুরনো নোট বাজার থেকে অপসারণ করা হবে। গত বছর ঈদুল ফিতরের সময় ৩০ হাজার কোটি টাকার মতো নতুন নোট ছাড় করেছিল কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

‘চাহিদা-সরবরাহ নীতি অনুসরণ করে বাংলাদেশ ব্যাংক সারা বছর বাজারে নোট সরবরাহ করে। তবে ঈদের আগে নোটের চাহিদা বেশি থাকে। এ বিবেচনায় ঈদ উপলক্ষে ১৪ হাজার কোটি টাকার নতুন নোট বাজারে ছাড়া হচ্ছে ‘-জানান তিনি।

এখন পর্যন্ত বাজারে কত টাকা এসেছে সে বিষয়ে সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘এর মধ্যে এখন পর্যন্ত ৪ হাজার কোটি টাকা বাজারে চলে গেছে। এখনও ১০ থেকে ১১ হাজার কোটি টাকার নোট আছে। ব্যাংকগুলোর চাহিদা অনুযায়ী বাজারে নোট ছাড়া হবে।’

তবে নতুন নোট বাজারে ছাড়লেও করোনার বিধিনিষেধের কারণে আগের মতো জনসাধারণের কাছে নোট বিনিময় করছে না কেন্দ্রীয় ব্যাংক। ব্যাংকগুলোর গ্রাহকরা লেনদেনের সময় নতুন টাকা নেওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন। এছাড়া অনেক এটিএম বুথেও নতুন নোট দেওয়া হচ্ছে।

নিউজ হান্ট/আরকে

পূর্ববর্তী নিবন্ধবন্ধ দোকানঘরে মিলল যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ
পরবর্তী নিবন্ধনওগাঁয় খাদ্য সহায়তা পেলেন ৩০০ জন