রবিবার, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২১

করোনার ঊর্ধ্বগতি: মঙ্গলবার বৈঠকে বসছেন সরকারের শীর্ষ কর্তারা

আরও পড়ুন

বিধিনিষেধ আরোপ হলেও কোনোভাবেই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা কমানো যাচ্ছে না। এ পরিস্থিতিতে করণীয় নির্ধারণে মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) সচিবালয়ে বৈঠকে বসছেন সরকারের নীতিনির্ধারকরা।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ বৈঠকে মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, সিনিয়র সচিব ও সচিবসহ স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা উপস্থিত থাকবেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার ভার্চুয়াল বৈঠক শেষে সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘হাসপাতালের সিট সংখ্যা বৃদ্ধি ও বেশি ডাক্তার নিয়োজিত করে করোনা নিয়ন্ত্রণ করা যাবে না। ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে স্পেন, ডেনমার্ক, সুইডেন, নরওয়ে, জার্মানির অনেক কিছু থাকা সত্ত্বেও এর মধ্যে জার্মানি করোনা মোকাবিলায় অসহায় হয়ে পড়েছিল। ভারতও হিমশিম অবস্থায়। তবে করোনা থেকে মুক্ত থাকতে সকলকে মাস্ক পরতে হবে।’

লকডাউন আরও বাড়ানো হবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘মঙ্গলবারের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হতে পারে।’

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘রোববার শিল্পাঞ্চল পুলিশের অ্যাডিশনাল আইজির সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। এসব অফিসের মেশিনগুলো চালু রাখতে টেকনিক্যাল কর্মী আসা যাওয়া করছেন। কারণ তারা কারখানার অনেক যন্ত্রাংশ সার্ভিসিং করে থাকেন। এরপরও মোবাইল কোর্ট চেকিং করছে।’

সোমবার (২৬ জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ২৪৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এটি দেশে এক দিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড। এ নিয়ে করোনায় দেশে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৯ হাজার ৫২১ জনে।

২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ১৫ হাজার ১৯২ জন। এটিও এক দিনে দেশে সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড। এ নিয়ে দেশে মোট শনাক্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১১ লাখ ৭৯ হাজার ৮২৭ জনে। এর আগে গত ১৩ জুলাই দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৩ হাজার ৭৬৮ জন আক্রান্ত হয়েছিলেন।

এর আগে রোববার ২২৮, শনিবার ১৯৫, শুক্রবার ১৬৬, বৃহস্পতিবার ১৮৭, বুধবার ১৭৩ ও মঙ্গলবার ২০০ জনের মৃত্যু হয়। গত ৭ জুলাই প্রথমবারের মতো দেশে মৃতের সংখ্যা ২০০ ছাড়ায়। এদিন মৃত্যু হয় ২০১ জনের।

নিউজ হান্ট/ম

সর্বশেষ