করোনা বেড়েই চলছে খুলনায়

8

খুলনায় ক্রমেই বাড়ছে করোনা পজিটিভ রোগী শনাক্ত ও মৃত্যু। বাড়ছে খুলনার ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালে রোগীর চাপ, বাড়ছে ভোগান্তি।

বেডের তুলনায় রোগীর চাপ বেশি হওয়ায় জনবল সংকট সৃষ্টি হয়েছে। চিকিৎসাসেবা দিতে হাসপাতালের কর্মরতদের হিমশিম খেতে হচ্ছে।

খুলনা করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে একদিনে আরও দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। ৬ জুন চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। এ নিয়ে খুলনায় করোনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৮৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে খুমেক পিসিআর ল্যাবের পরীক্ষায় একদিনে ৫০ জনের করোনা পজিটিভ এসেছে। খুমেক পিসিআর ল্যাবের তথ্য অনুযায়ী ৬ জুন খুলনা মেডিক্যাল কলেজ পিসিআর মেশিনে ১৮৮ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয়। তাদের মধ্যে ১৬১ জন খুলনা মহানগরী ও জেলার।

এর মধ্যে ৫০ জনের করোনা পজিটিভ এসেছে। যার মধ্যে খুলনা মহানগরী ও জেলার ৩৯ জন, বাগেরহাটের ছয় জন, যশোরের তিন জন ও সাতক্ষীরার দুই জন রয়েছেন।

খুলনা করোনা হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, ৬ জুন বিকাল পৌনে ৫টায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোগী আমেনা খাতুন (৬৫) মারা যান। তিনি খুলনার টুটপাড়ার মৃত আমসুউদ্দীনের স্ত্রী। ৬ জুন সন্ধ্যা সোয়া ৭টায় সাতক্ষীরা শ্যামনগরের বাসিন্দা মোহাম্মদ আলী (৭৫) মারা যান। তিনি গত ৩ জুন করোনা ইউনিটে ভর্তি হন।

এদিকে গত দুই মাসে (১ এপ্রিল থেকে ৬ জুন) করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন ১০৫ জন। খুলনা মেডিক্যাল কলেজে আরটি-পিসিআর ল্যাবে করোনা টেস্টে এপ্রিল থেকে মে মাস পর্যন্ত দুই মাসে পজিটিভ শনাক্ত হয় তিন হাজার ১০২ জন। এর মধ্যে খুলনার শনাক্ত হন দুই হাজার ৩৭৪ জন।

করোনা হাসপাতালে দেখা যায়, মেঝেতে বিভিন্ন ময়লা-আবর্জনা। নিচতলায় একপাশে ময়লার স্তূপ। বাথরুম থেকে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে।

নিউজ হান্ট/ম

পূর্ববর্তী নিবন্ধস্মার্টফোন কিনতে ঋণ পাচ্ছেন ঢাবি শিক্ষার্থীরা
পরবর্তী নিবন্ধচট্টগ্রামের ‘দুঃখ’ জলাবদ্ধতা