কারও দূরভিসন্ধি থাকলে ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

10

কক্সবাজারের বালুখালীতে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবির পরিদর্শন করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। এসময় তিনি বলেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আগুনের ঘটনায় কারও দূরভিসন্ধি থাকলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্ত্রী বলেন, আইন শৃংখলা বাহিনীর কোনো গাফেলতি ছিলে কী না তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আজ বুধবার (২৪ মার্চ) দুপুর ২টার দিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হেলিকপ্টারে করে উখিয়ায় যান।

এসময় মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন কক্সবাজার সদর আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার শাহ রেজোয়ান হায়াতসহ সংশ্লিষ্টরা।

বালুখালীর ক্যাম্পে অগ্নিকান্ডের ধংসস্তুপ সরিয়ে সেখানে আবার নতুন করে বসতঘর তৈরি করছেন শত শত রোহিঙ্গা। রোহিঙ্গা শিবিরে কর্মরত দেশি-বিদেশি বিভিন্ন এনজিও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে নতুন করে বসতঘর তৈরির জন্য বাঁশ, নাইলন, রশি, ত্রিপল, পলিথিন, ডেউটিন এসব সরবরাহ করছে।

অতিরিক্ত শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার সামসুদদৌজা জানিয়েছেন, নতুন করে বসতঘর তৈরির কাজ শিবিরের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা (ক্যাম্প ইনচার্জ) তদারকি করছেন। এছাড়া ইউএনএইচসিআর ও আইওএম জরুরিভাবে তাবু স্থাপন করছে সীমিত পরিসরে। তাবুগুলোতে ক্ষতিগ্রস্ত রোহিঙ্গা পরিবারগুলো অবস্থান নিচ্ছে।

জাতিসংঘের পক্ষ থেকে অগ্নিকান্ডে মৃতের সংখ্যা ১৫ জন বলা হলেও আরআরআরসি কার্যালয় মৃতের সংখ্যা ১১ জন বলে জানিয়েছে।

আগুনের ঘটনায় পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের উপ-মহাপরিদর্শক মো. আনোয়ার হোসেন জানান, কয়েকজন রোহিঙ্গাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

নিউজ হান্ট/আরকে