টিকটক-লাইকিতে অশ্লীল ভিডিও, রাজশাহীতে নারীসহ ৪ জন গ্রেপ্তার

14

মীর তোফায়েল হোসেন (রাজশাহী থেকে): অশ্লীল ও অশালীন টিকটক-লাইকি মিউজিক ভিডিও তৈরি করায় রাজশাহীতে সহযোগীসহ দুই তরুণীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রোববার সন্ধ্যায় রাজশাহী মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ বিশেষ অভিযান চালিয়ে নগরীর বিভিন্ন স্থান থেকে তাদের আটক করে। সেই সাথে একজন ভিকটিমকেও উদ্ধার করে পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন, টিকটক-লাইকি তারকা হিসেবে পরিচিত তানিশা ও তিশা। আর তাদের সহযোগীরা হলেন মেহেদী ও রাব্বি। এদের মধ্যে তানিশার বাড়ি নগরের মতিহার থানার খোঁজাপুর, পায়েলের বাড়ি নওগাঁর মান্দা উপজেলার নারায়নপুর এবং মেহেদীর বাড়ি পবার কানপাড়া ও রাবির নগরের চন্দ্রিমা থানার মুশরাইল।

নগরের বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্র এবং বাসা-বাড়িতে তারা টিকটক-লাইকি মিউজিক ভিডিও তৈরি করে থাকে। সোমবার দুপুরে মহানগর পুলিশের সদরদপ্তরে তাদের সাংবাদিকদের সামনে হাজির করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিকী জানান, টিকটক-লাইকি গ্রুপের হয়ে পায়েল ও তানিশা বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে মিউজিক ভিডিও করার জন্য তরুণ-তরুণীদের আকৃষ্ট করে। তাদের ফাঁদে পড়া একজন ভিকটিমকেও উদ্ধার করে পুলিশ। গ্রেপ্তার পায়েল ও তানিশার কাছ থেকে টিকটক-লাইকি গ্রুপের বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেয়েছে পুলিশ। এ গ্রুপে জড়িত অনেকের নামও পাওয়া গেছে। তাদেরকেও গ্রেপ্তার করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ কমিশনার আরও বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে লাইকি গ্রুপের ভিডিও তৈরির মুল হোতা মেহেদী হাসান পুলিশকে জানিয়েছে, লাইকি ভিডিও তৈরি করে প্রতি মাসে আট থেকে দশ হাজার টাকা আয় করে। অভাবী কিশোর-কিশোরীদের দিয়ে অশ্লীল ও আপত্তিকর ভিডিও তৈরি করতো।

আবু কালাম সিদ্দিকী বলেন, রাতারাতি জনপ্রিয়তা পাওয়ার জন্য অনেকেই এ ধরনের ভিডিও তৈরি করে নৈতিকভাবে ধ্বংসের পথে পা বাড়াচ্ছে। অশ্লীল ও আপত্তিকর টিকটক, লাইকি ও বিগো লাইভ ভিডিও সমাজের নৈতিক অবক্ষয় ও যুবক সমাজকে ধ্বংসের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। এমনকি অনেকে বিভিন্ন ধরনের অপরাধের সাথে জড়িয়ে পরাসহ মাদক সেবন এবং মাদক ব্যবসায় জড়িত হচ্ছে। এ ধরনের ভিডিও কিশোর অপরাধের মতো ঘটনা উস্কে দিচ্ছে।

তিনি বলেন, এর আগে গত ২ জুন রাজশাহী নগরীতে অভিযান চালিয়ে দুই নারীসহ নয়জনকে গেপ্তার করা হয়েছিল। কিশোর অপরাধ অশ্লীলতা মুক্ত শান্তির রাজশাহী শহর প্রতিষ্ঠায় অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

নিউজ হান্ট/কেএইচ

পূর্ববর্তী নিবন্ধবাগেরহাটে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি, ইউপি নির্বাচন স্থগিতের দাবি
পরবর্তী নিবন্ধমেলান্দহে স্ত্রীকে হত্যা: স্বামী আ’লীগ নেতার রিমান্ড শুনানি ৮ জুন