ডব্লিউএইচও’র জরুরি অনুমোদন পেল মডার্নার ভ্যাকসিন

8

জরুরি ব্যবহারের জন্য মার্কিন কোম্পানি মডার্নার ভ্যাকসিনকে অনুমোদন দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এখন পর্যন্ত মোট পাঁচটি ভ্যাকসিন এমন অনুমোদন পেয়েছে।

সংস্থার বিবৃতিতে শুক্রবার বলা হয়েছে, ‘এর উদ্দেশ্য হল গুরুত্ব অনুযায়ী ওষুধ, টিকাকে যত দ্রুত সম্ভব সহজলভ্য করা।’

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, অন্য ভ্যাকসিনের সরবরাহ নিয়ে জটিল পরিস্থিতির সৃষ্টি হওয়ায় বেশি ভ্যাকসিনের অনুমোদন জরুরি ছিল। এক্ষেত্রে ভারতের উদাহরণ দিয়েছে সংস্থাটি।

ভারতে করোনার সংক্রমণ বাড়তে থাকায় দেশটিতে উৎপাদিত ভ্যাকসিন অন্য দেশে সরবরাহ সাময়িকভাবে বন্ধ রয়েছে।

মডার্না চলতি সপ্তাহে জানিয়েছে, তারা উৎপাদন প্রক্রিয়া আরও বিস্তৃত করতে চায়। ২০২২ সাল নাগাদ ৩ বিলিয়ন ডোজ উৎপাদনের সক্ষমতা অর্জনের আশা তাদের।

ডব্লিউএইচও আগে থেকেই জানিয়েছে, মডার্নার টিকা ১৮ বছরের বেশি বয়সী সব মানুষকে দেয়া যায়।

মডার্নার মতো এমআরএনএ ভিত্তিক ভ্যাকসিন ফাইজার ২০২০ সালের শেষ দিকে জরুরি ব্যবহারের জন্য প্রথম অনুমোদন পায়। এরপর অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন তালিকায় আসে। পরে যোগ হয় জনসন অ্যান্ড জনসনের ভ্যাকসিন এবং সেরামেরটি।

চীনের তৈরি ভ্যাকসিন নিয়ে এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে আসতে পারেনি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। চলতি সপ্তাহের শেষ দিকে এ বিষয়ে একটা ঘোষণা আসতে পারে।

পূর্ববর্তী নিবন্ধনারায়ণগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২
পরবর্তী নিবন্ধ৪৯৩ রানে ইনিংস ঘোষণা শ্রীলংকার