তিন আসনে উপনির্বাচন: প্রথম দিনে আ.লীগের মনোনয়নপত্র কিনলেন ২১ জন

4

তিন আসনের উপনির্বাচনে মনোনয়নপত্র বিক্রি শুরু করেছে আওয়ামী লীগ। শূন্য হওয়া ঢাকা-১৪, সিলেট-৩ এবং কুমিল্লা-৫ আসনের উপ-নির্বাচনের প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আগ্রহীদের কাছে মনোনয়নপত্র বিক্রি করা হয়। প্রথমদিন শুক্রবার এই তিনটি আসনে আগ্রহী ২১ জন দলীয় মনোনয়ন ফরম কিনেছেন। ১০ জুন পর্যন্ত মনোনয়ন ফরম বিক্রি চলবে।

শুক্রবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় আওয়ামী লীগ। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ঢাকা-১৪ আসনের মনোনয়ন সংগ্রহকারীদের মধ্যে রয়েছেন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল, ফরিদুল হক হ্যাপী, এবিএম মাজহারুল আমান প্রমুখ।

কুমিল্লা-৫ আসনে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহকারীদের মধ্যে রয়েছেন সাজ্জাদ হোসেন, এসএম জাহাঙ্গীর, সেলিম রেজা সৌরভ প্রমুখ। আর সিলেট-৩ আসনের মনোনয়ন সংগ্রহকারীদের মধ্যে রয়েছেন আওয়ামী লীগে সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মেসবাহ উদ্দিন সিরাজ, হাবিবুর রহমান, সাঈদুর রহমান প্রমুখ।

ঢাকা-১৪ আসনের সংসদ সদস্য আসলামুল হক গত ১৪ এপ্রিল, সিলেট- ৩ আসনের সংসদ সদস্য ১১ মার্চ এবং কুমিল্লা-৫ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল মতিন খসরু গত ১৪ এপ্রিল মারা যান। তাদের মৃত্যুতে আসনগুলো শূন্য ঘোষণা করা হয়।

নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, শূন্য হওয়া তিন আসনের উপ নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমার শেষ তারিখ ১৫ জুন। ১৭ জুন যাচাই বাছাইয়ের পর ২৩ জুন পর্যন্ত মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করা যাবে। প্রচার শেষে ভোট হবে ১৪ জুলাই।

উপ-নির্বাচনে প্রার্থীতা বিষয়ের আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘এবার মনোনয়ন পেতে ইচ্ছুক প্রার্থীর সংখ্যা অনেক। খুব একটা অসুবিধা নেই, এই কথা মনে করে অনেকই আবার প্রার্থী হচ্ছেন। পায় বা না পায় প্রার্থী হতে চায়। কারণ বিএনপি নেই শুনেছে। সেই জন্য প্রার্থীতার দৌড়ও বেড়ে গেছে। নেত্রীর সঙ্গে নির্দিষ্ট কোনো ব্যক্তির বিষয়ে আলোচনা হয়নি।’

এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী সাধারণ একটি গাইডলাইন দিয়েছেন বলে জানান ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, সেটা হলো- ‘আমি ত্যাগী ও পরীক্ষিত কাউকে মনোনয়ন দেব। যারা জনগণের কাছে অধিকতর গ্রহণযোগ্য এবং দুঃসময়ে ছিলেন। এমন একটি ধারণা তিনি আমাকে দিয়েছেন।’

নিউজ হান্ট/কেএইচ

পূর্ববর্তী নিবন্ধবজ্রপাতে দুই জেলায় নিহত ৯
পরবর্তী নিবন্ধটিকা প্রদানে বাংলাদেশকে অগ্রাধিকার দেবে যুক্তরাষ্ট্র