দাবদাহে পুড়ছে দেশ

7

চলছে চৈত্র মাস। মাসটি যতই সামনের দিকে এগোচ্ছে, বাড়ছে গরমের তীব্রতা। লাগাতার দাবদাহে জনজীবনে হাঁসফাঁস অবস্থা। দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছুঁই ছুঁই। স্বস্তির বৃষ্টির অপেক্ষায় মানুষ।

শনিবার (২৭ মার্চ) বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর থেকে দেওয়া তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা যাচ্ছে, গত কয়েকদিনে সর্বোচ্চ তাপমাত্রার গড় প্রায় ৩৭ থেকে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল। একাধিক এলাকায় বয়ে যাচ্ছে দাবদাহ। কোথাও যেন নেই স্বস্তি।

আগামী ২৪ ঘণ্টার তাপমাত্রার তথ্যে বলা হয়েছে, সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে।

তবে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

এদিকে রাঙ্গামাটি ও চট্টগ্রাম জেলার ওপর দিয়ে মাঝারি ধরনের দাবদাহ বয়ে যাচ্ছে। সন্দ্বীপ, ফেনী, কক্সবাজার, চাঁদপুর, রাজশাহী ও পাবনা অঞ্চলসহ ঢাকা, সিলেট, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু তাপ প্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। এটি অব্যাহত থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। দাবদাহ বয়ে যাওয়া এলাকায় তাপমাত্রার গড় প্রায় ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল সীতাকুণ্ডে; ৩৮ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বনিম্ন তামপাত্রা ছিল তেঁতুলিয়া, ডিমলা ও রাজারহাট এলাকায়; ১৫ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সিনপটিক অবস্থায় বলা হয়েছে, পশ্চিম লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসগারে অবস্থান করছে। ঢাকায় বাতাসের গতি ও দিক ছিল পশ্চিম অথবা উত্তর পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৫ থেকে ১০ কিলোমিটার। ঢাকায় বাতাসের আপেক্ষিক আর্দ্রতা ছিল ৬০ শতাংশ।

নিউজ হান্ট/ম