দুলাভাইয়ের সঙ্গে ঘুরতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার

28

বরগুনা প্রতিনিধি: দুলাইভাইয়ের সঙ্গে ঘুরতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক নারী। বরগুনা জেলার তালতলী উপজেলার সোনাকাটা টেংরাগিরি-ইকোপার্ক বনে বুধবার বিকেলে এই ঘটনা ঘটেছে।

এই ঘটনায় ভুক্তভোগী বাদী হয়ে চারজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) ফরিদুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। মামলার আসামিরা হলেন, সোহাগ (২৫), হাসান (২৮), মিজানুর (২৪) ও জাহিদুল (২৭)।

মামলার বিবরণে বলা হয়েছে, বুধবার বিকেলে আমতলী থেকে তালতলীর সোনাকাটা টেংরাগিরি-ইকোপার্কটিতে ঘুরতে আসেন ভুক্তভোগী ও তার দুলাভাই। পরে তারা ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল নিয়ে টেংরাগিরি ইকোপার্কে যান। প্রবেশদ্বারের কিছুটা ভেতরে হরিণের বেষ্টনীর কাছাকাছি গেলে দুলাভাই পানি আনতে দোকানে যান।

সেসময় চার বখাটে এসে মোটরসাইকেল চালককে বলেন— ‘এখানে তোমরা প্রেম করতে এসেছো। এটা প্রেমের জায়গা নয়’। এরপর চালককে গাছের সঙ্গে বেঁধে মোবাইল ও মোটরসাইকেলের চাবি ছিনিয়ে নেওয়া হয়। ভুক্তভোগীকে বনের ভেতরে নিয়ে সোহাগ ও হাসান ধর্ষণ করেন। আর মিজানুর ও জাহিদুল পাহারা দেন। পরে স্থানীয়রা ভুক্তভোগীকে উদ্ধার করে থানায় খবর দেন। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

ভুক্তভোগীর দুলাভাই সংবামাধ্যমকে জানান, শ্যালিকাকে নিয়ে সোনাকাটা-টেংরাগিরি ইকোপার্কে ঘুরতে যাই। পরে এক ফাঁকে পানি নিতে যাই। এ সুযোগে স্থানীয় চারজন মোটরসাইকেল চালককে মারধর করে মোবাইল ছিনতাই করেন। এরপর শ্যালিকাকে দু’জন ধর্ষণ করেন।

ওসি ফরিদুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ভুক্তভোগীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। পরে তিনি বাদী হয়ে চার জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

নিউজ হান্ট/কেএইচ