দেশ দেউলিয়া হয়ে গেছে: ডা. জাফরুল্লাহ

6

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, এই দেশ দেউলিয়া হয়ে গেছে আর সরকার দাঁড়িয়ে আছে ধারের (ঋণ) ওপরে।

আজ বুধবার (১৬ জুন) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ লেবার পার্টি এ মানববন্ধনের আয়োজন করে।

তিনি বলেন, সরকার ৬ লাখ কোটি টাকার বাজেট করেছে। আমি একটা লেখা লিখেছি, অর্থমন্ত্রীর ভানুমতির খেলা। এই ৬ লাখ কোটি টাকার মধ্যে ১ লাখ ২৫ হাজার কোটি টাকা পাবেন জনপ্রশাসন অর্থাৎ আমলারা। অর্থাৎ আমলারা এক-পঞ্চমাংশ ভাগ পাবেন। বাজেটে সরকার তাদেরকে খুশি করেছেন। এই আমলারা সরকারকে ক্ষমতায় এনেছেন, তাই তাদেরকে খুশি রাখতে এ ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই দেশ দেউলিয়া হয়ে গেছে আর সরকার দাঁড়িয়ে আছে ধারের (ঋণ) ওপরে। এই বছরের বাজেটে প্রতিটি রন্ধ্রে রন্ধ্রে দুর্নীতির সুযোগ করে দিয়েছে সরকার।

জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশ ১৫ কোটি লোক আছে, তার মধ্যে ১২ কোটি লোকের কোন জন্ম তারিখ নেই। এদেশের দুর্বল হাইকোর্টের বিচারপতি, বিবেকহীন, পা-চাটা উঠবস করা বিচারপতিগণ এই মামলাটা যখন হাইকোর্টে গেল, তাদের প্রথম দিনই এটাকে ডিসমিস করা উচিত ছিল। বাংলাদেশের কোন মেয়ে লোকের বয়স ঠিক আছে? এমনকি হাসিনারও ঠিক আছে কিনা আমার সন্দেহ আছে। কারোরই বয়স নাই। আমাদের সময়ে বাপ-মা’রা বয়স ঠিক করতেন না, বয়স ঠিক করতেন হেডমাস্টার। আমরা যারা উঁচু লেখাপড়া করার সুযোগ পেয়েছি, আমাদের বয়স ঠিক করতেন হেডমাস্টার।

তিনি আরো বলেন, আজকে সেখানে খালেদা জিয়ার বয়স নিয়ে একটা মামলা করেছে, এটা দেখে হাইকোর্টের বিচারপতির প্রথমেই বলা উচিত ছিল- এইসব ফালতু কিছু দেখার জন্য হাইকোর্টের সৃষ্টি হয় নাই। আপনারা এটা কি করছেন? বিএনপি এত বড় একটা পার্টি, তার নেত্রীকে আপনারা অপমান করছেন। আমি মনে করি, তাদের উচিত হবে সবাইকে সঙ্গে নিয়ে সংসদ ভবনে যাওয়া। এবং প্রধান বিচারপতিকে ঘেরাও করা। আজকে সবাইকে নিয়ে আন্দোলন করা ছাড়া আমাদের কারও মুক্তি নাই।

নিউজ হান্ট/এনএইচ

পূর্ববর্তী নিবন্ধশিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার দাবিতে বিক্ষোভে পুলিশের বাধা
পরবর্তী নিবন্ধনওগাঁয় লকডাউনের মেয়াদ বাড়লো