বজ্রপাতের শব্দে মারা গেলেন শিক্ষিকা

46

রাজধানীর পল্লবীতে বজ্রপাতের শব্দে আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে ফৌজিয়া বেগম শিমু নামে এক স্কুল শিক্ষিকার মৃত্যু হয়েছে। শনিবার দুপুর ২টায় মিরপুর ১১ নম্বর বি ব্লকের ২০ নম্বর লাইনে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ফৌজিয়া বেগম শিমু জান্নাত একাডেমি হাইস্কুলের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সিনিয়র শিক্ষিকা। নিহতের স্বামী আলমগীর হোসেন একই প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক হিসেবে কর্মরত।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন জানান, শনিবার দুপুরে নিহত ওই শিক্ষকা তার দুই সন্তানকে সঙ্গে নিয়ে কোচিং সেন্টার থেকে বাসায় ফিরছিলেন। এরপর মিরপুর ১১ নম্বর বি ব্লক ২০ নম্বর লাইনের মাথায় ওয়ালটনের শো রুমের সামনে পৌঁছামাত্র বিকট শব্দে বজ্রপাত হয়। এতে আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে ওই শিক্ষিকা মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। মৃত অবস্থায় তাকে বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়।

নিহত শিক্ষিকার স্বামী আলমগীর বলেন, আমার ধারণা বজ্রপাতের শব্দে আতঙ্কিত হয়ে আমার স্ত্রী মারা গেছে। তবে তার শরীরে বজ্রপাত হয়নি। কারণ আমার বাচ্চারা ওই সময় তার সঙ্গে ছিল। তাহলে তাদেরও ক্ষতি হতো।

জান্নাত একাডেমি হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক দেলোয়ার হোসেন বলেন, আমি শুনেছি বজ্রপাতের শব্দে আমাদের এক স্কুল শিক্ষিকা মারা গেছেন।

নিউজ হান্ট/ম

পূর্ববর্তী নিবন্ধভারতের সেই রাম রহিম সিং করোনায় আক্রান্ত
পরবর্তী নিবন্ধঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস আজ