বাগেরহাটে মামলা করে ঘর ছাড়া ভুক্তভোগী পরিবার, প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা

6

রুহুল আমিন বাবু (বাগেরহাট থেকে): বাগেরহাট সদর উপজেলার বেমরতা ইউনিয়নের সুলতানপুর গ্রামে প্রতিপক্ষের হামলার ঘটনায় মহিলাসহ ৬ জন আহত হওয়ার ঘটনায় বাগেরহাট সদর থানায় মামলা দায়ের করে ভুক্তভোগী পরিবার। এতে আসামী ও তাদের লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে ভুক্তভোগীর বাড়িতে বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ভয়ভীতি দেয় ও এলাকা ছেড়ে চলে যেতে বলে। অন্যথায় প্রাণে মেরে ফেলবে বলে হুমকি দেয়।

জীবন বাঁচাতে পরিবারের সকল সদস্য এখন বাড়ি ছাড়া। তাদের এখন একটাই দাবি যাতে নিজ বাড়িতে শান্তিপূর্ণ বসবাস করতে পারেন। এ জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ ও সুদৃষ্টি কামনা করেন ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা।

মামলা দায়েরের পর গত শুক্রবার (৫ জুন) রাতে অভিযান চালিয়ে সুলতানপুর থেকে মামলার প্রধান আসামী স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতা তারিকুজ্জামান নকিবকে (২৬) আটক করেছে পুলিশ।

মামলার বাদী মো: জাকির হোসেন জানান, আমাদের বাড়িতে অবৈধভাবে প্রবেশ করে ঘর বাধলে গেলে আমরা বাধা দিলে আসামীদের দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে নারীসহ ৬ জন গুরুত্বর জখম হয়। আমরা হামলার ঘটনায় ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে প্রশাসনকে জানাই। পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় আমরা পরবর্তীতে থানায় লিখিত অভিযোগ দেই।

প্রশাসন ঘটনার সত্যতা পেয়ে বৃহস্পতিবার অভিযোগটি এজাহার ভুক্ত করেন। পুলিশ শুক্রবার মামলার প্রধান আসামী ছাত্রলীগ নেতাকে গ্রেপ্তার করলে আসামীরা আমাদের উপর আরো বেশি ক্ষিপ্ত হয়। আসামীরা প্রভাবশালী হওয়ায় গ্রেপ্তারের পর থেকে মামলার অন্য আসামীরা বাড়িতে বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ভয়ভীতি দেয় ও এলাকা ছেড়ে চলে যেতে বলে। অন্যথায় প্রাণে মেরে ফেলবে বলে হুমকি দিয়ে যায়। প্রাণের ভয়ে এখন আমাদের পরিবারের সকল সদস্য বাড়ি ছাড়া।

তিনি মামলার অন্য আসামীদের গ্রেপ্তারসহ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ ও সুদৃষ্টি কামনা করেন।

এ বিষয়ে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আজিজুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ একজন আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে। বাকী আসামীদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

নিউজ হান্ট/আরকে

পূর্ববর্তী নিবন্ধরাজশাহীতে করোনায় মৃতের সংখ্যায় গরমিল, একে অপরকে দোষারোপ
পরবর্তী নিবন্ধজনসম্মুখে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁকে থাপ্পড়