বাজার থেকে আনা ফলমূল-শাকসবজি জীবাণুমুক্ত করবেন যেভাবে

10

করোনাভাইরাসের চোখরাঙানি কমছে না। প্রতিদিনই বহু মানুষের প্রাণ নিচ্ছে এই ভাইরাস। এমন অবস্থায় প্রতিটি ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকা জরুরি। সতর্কতা হিসেবে বাজার থেকে ফল ও সবজি কিনে আনবেন, তখন তাকে অবশ্যই জীবাণুমুক্ত করা প্রয়োজন। চলুন এটি কীভাবে করতে হবে তা জেনে নিই।

বাজার থেকে সবজি বা ফল কিনে আনার পরেই তাকে টেবিলে রেখে দেবেন না। কিংবা মেঝেতে রাখবেন না। একদম রান্নাঘরে নিয়ে যান। সিঙ্কে রাখুন। একবার ঠান্ডা পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিন। তারপর পানি গরম করে নিন। সেই গরম পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। এতে শুধুই যে আপনার সবজি জীবাণুমুক্ত হবে তাই নয়, সবজিতে যে রং বা কীটনাশক ব্যবহার করা হয় তাও চলে যাবে।

মাটির তলার সবজির ক্ষেত্রে আপনাকে আরও সতর্ক হতে হবে। যেমন আলু, গাজর, আদা, পেঁয়াজ ও রসুন কেনার পর আরও সতর্কতার সঙ্গে এগুলো জীবাণুমুক্ত করবেন। পেঁয়াজ ও রসুন বাদে অন্যান্য সবজির ক্ষেত্রে তা ভাল করে ধুয়ে নেবেন। ধুলা ও মাটি লেগে থাকলে তা ধুয়ে যাবে। এরপর একটি বড় পাত্রে গরম পানি করে নিন। পানি ফুটিয়ে নেওয়ার প্রয়োজন নেই। এতে লবণ মিশিয়ে নিন। তারপর এই সবজিগুলো ভিজিয়ে রাখুন। পেঁয়াজ ও রসুন ধুয়ে রাখলে খারাপ হয়ে যেতে পারে। তাই এগুলো কোনও কাগজের ঠোঙায় রেখে দিন। রান্না করার আগে আপনি এগুলো উষ্ণ পানিতে ধুয়ে তবেই রান্নায় ব্যবহার করতে পারেন।

বাজার থেকে শাক কিনে নিয়ে এলে সেই শাককেও পরিষ্কার করে নেওয়া প্রয়োজন। তার জন্য একটি বাটিতে পানি নিন। সামান্য গরম করে নেবেন। তার মধ্যেই মিশিয়ে দেবেন, বেকিং সোডা। সেই পানিতে শাক ভিজিয়ে রাখবেন। এতে আপনার শাক জীবাণুমুক্ত হবে।

সবজি বা ফলে কখনও স্যানিটাইজার লাগাবেন না বা জীবাণুনাশক স্প্রে করবেন না। কারণ সেটি আপনি খাবেন। তাই তাতে এমন কোনও রাসায়নিক মেশাবেন না যা আপনার স্বাস্থ্যের ক্ষতি করতে পারে।

নিউজ হান্ট/কেএইচ

পূর্ববর্তী নিবন্ধনড়াইলে সরকারি গুদামে ধান ক্রয়ের উদ্বোধন
পরবর্তী নিবন্ধকলকাতায় কঙ্গনার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের