বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা পেছাবে কি না জানা যাবে ৫ মে

11

করোনা ভাইরাসের সংক্রামণ ঠেকাতে চলমান বিধিনিষেধ আগামী ৫ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। এ অবস্থায় দেশের সব স্বায়ত্তশাসিত ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা পূর্বনির্ধারিত তারিখে অনুষ্ঠিত হওয়া নিয়ে দেখা দিয়েছে চরম অনিশ্চয়তা।

তবে আগামী ৫ মে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার দিনক্ষণ পেছানো যায় কি-না তা নিয়ে বৈঠক ডেকেছে উপাচার্যদের সংগঠন বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদ।

আজ শুক্রবার (৩০ এপ্রিল) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সংগঠনটির সভাপতি এবং চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূর বলেন, দেশে করোনা মহামারি চলছে গত বছর থেকে। আমরা আগেই বলে দিয়েছিলাম যে, করোনা পরিস্থিতি সহনীয় পর্যায়ে আসলে আমরা সশরীরে ভর্তি পরীক্ষার আয়োজন করবো।

তিনি বলেন, আগামী ৫ মে বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদের একটি মিটিং রয়েছে। করোনা পরিস্থিতিতে সব বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক ভর্তি পরীক্ষা আয়োজনের বিষয়টি সেখানে এজেন্ডা হিসেবে রয়েছে।

দেশে ৪৬টি স্বায়ত্তশাসিত ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে একাডেমিক কার্যক্রম চালু রয়েছে। এর মধ্যে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী আররী বিশ্ববিদ্যালয় ও ৪টি মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়া বাকি ৩৯টিতে সরাসরি ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তি হয়ে থাকে।

এবার তিন গুচ্ছে ২৯টি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। আর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় বাদে বাকিগুলোতে সরাসরি ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তি নেবে। গত ১৭ ফেব্রুয়ারি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এবং মেডিকেলে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষার সম্ভাব্য তারিখ ঠিক করে উপাচার্যদের সংগঠন বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদ।

নিউজ হান্ট/এনএইচ

পূর্ববর্তী নিবন্ধশুল্ক ফাঁকি: সামুদ্রিক মাছ পাচারের সময় ভারতীয় ট্রাক জব্দ
পরবর্তী নিবন্ধমানিকগঞ্জে হেরোইনসহ দুই মাদকবিক্রেতা আটক