বিশ্বসেরা ৮০০ বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় বাংলাদেশের একটিও নেই

7

যুক্তরাজ্যভিত্তিক প্রতিষ্ঠান কোয়াককোয়ারেল সাইমন্ডস (কিউএস) বিশ্বের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর র‍্যাঙ্কিং ২০২২ প্রকাশ করেছে। তাতে প্রথম ৮০০ বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ও বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) অবস্থান নেই।

গত বছরের মতো এই বছরের তালিকাতেও দেশের শীর্ষ দুটি বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান ৮০১ থেকে ১০০০ এর মধ্যে রয়েছে। কিউএস তাদের তালিকায় ৫০০ এর পরে থাকা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর অবস্থান সুনির্দিষ্ট করে উল্লেখ করেনি।

প্রথম ৫০০ বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় অবশ্য প্রতিবেশি ভারত থেকে ৮টি ও পাকিস্তান থেকে তিনটি বিশ্ববিদ্যালয় স্থান পেয়েছে।

একাডেমিক খ্যাতি, চাকরির বাজারে সুনাম, শিক্ষক-শিক্ষার্থী অনুপাত, শিক্ষকপ্রতি গবেষণা-উদ্ধৃতি, আন্তর্জাতিক শিক্ষক অনুপাত ও আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থী অনুপাতের ভিত্তিতে বিশ্বের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর র‍্যাঙ্কিং করে প্রতিষ্ঠানটি।

২০১২ সালে কিউএস’র তালিকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান ছিল ৬০১ এর মধ্যে। ২০১৪ সালে তা পিছিয়ে ৭০১তম অবস্থানের পরে চলে যায়। ২০১৯ সালে তালিকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান আরও পেছনের দিকে চলে যায়।

দেশের শীর্ষ দুটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি ও ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি কিউএস’র তালিকায় ১০০১ থেকে ১২০০তম অবস্থানের মধ্যে রয়েছে।

গত ১০ বছরের মতো এবারও তালিকায় শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি (এমআইটি)। এছাড়া, ২০২২ সালের তালিকায় শীর্ষ পাঁচে রয়েছে ইউনিভার্সিটি অব অক্সফোর্ড, স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটি, ইউনিভার্সিটি অব ক্যামব্রিজ ও হার্ভাড ইউনিভার্সিটি।

বিশ্বসেরা ১০০ বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে এশিয়া থেকে জায়গা হয়েছে ২৬টির। গত বছরও একই সংখ্যক বিশ্ববিদ্যালয় এই অঞ্চল থেকে তালিকায় ছিল।

এশিয়ার সেরা দুটি বিশ্ববিদ্যালয়ই সিঙ্গাপুরের। এশিয়া থেকে প্রথম স্থানে রয়েছে ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব সিঙ্গাপুর এবং দ্বিতীয় স্থানে নানইয়াঙ টেকনোলোজি ইউনিভার্সিটি। দুটি বিশ্ববিদ্যালয় যথাক্রমে বৈশ্বিক তালিকায় ১১তম ও ১২তম স্থানে রয়েছে।

নিউজ হান্ট/আরকে

পূর্ববর্তী নিবন্ধচাঁদপুরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার দাবিতে মানববন্ধন
পরবর্তী নিবন্ধনতুন দরিদ্রের হিসাব মানেন না অর্থমন্ত্রী