বি‌জিএমইএর সভাপ‌তি হ‌চ্ছেন ফারুক হাসান

32

পোশাক শিল্প মালিকদের শীর্ষ সংগঠন বিজিএমইএ নির্বাচ‌নে সম্মিলিত পরিষদের প্যানেল থেকে সংগঠনটির সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি ফারুক হাসান নতুন সভাপতি নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন। তিনি জায়ান্ট গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। আগামী ২০ এপ্রিল নতুন কমিটি দায়িত্ব নেবেন তিনি।

রবিবার ঢাকা অঞ্চলে রাজধানীর একটি হোটেলে ও চট্টগ্রাম অঞ্চলে বিজিএমইএর নিজস্ব কার্যালয়ে সংগঠনটির সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ৩৫ পরিচালক পদের মধ্যে সম্মিলিত পরিষদের মনোনীত ফারুক হাসানের প্যানেল ২৪টি এবং ফোরাম ১১টি পদে জয় পায়।

বিজিএমইএ পর্ষদ নির্বাচনে ৩৫ পরিচালক পদে এবার দুটি প্যানেলে মোট ৭০ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। নির্বাচনে অংশ নেয়া দুটি প্যানেল হলো সম্মিলিত পরিষদ ও ফোরাম। নির্বাচিতদের মধ্যে একজন হবেন সভাপতি ও সাতজন সহসভাপতি।

ঢাকায় বিজিএমইএর ভোটার সংখ্যা ১ হাজার ৮৫৩, চট্টগ্রামে ৪৬১। এর মধ্যে গতকাল ঢাকায় ভোট দিয়েছে ১ হাজার ৬০৪ জন। চট্টগ্রামে দিয়েছে ৩৯৬ জন। এ হিসেবে মোট ৮২ শতাংশ ভোট পড়েছে। গতকাল রাত সাড়ে ১১টায় পাওয়া ঢাকার ভোটের ফলাফলে এগিয়ে ছিল সম্মিলিত পরিষদ। ৩০৭ ভোট পেয়েছে সম্মিলিত পরিষদ। অন্যদিকে ফোরাম পেয়েছে ২৩৮ ভোট।

প্রাথমিকভাবে সম্মিলিত পরিষদ ও ফোরামের ৯৯ জন প্রার্থী ১০৩টি মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। গত ৪ মার্চ ৩৩টি মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করা হয়। এরপর চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করে নির্বাচন বোর্ড। ফারুক হাসানের নেতৃত্বে নির্বাচনে জোটবদ্ধভাবে সম্মিলিত পরিষদ ও স্বাধীনতা পরিষদ নির্বাচন করছে। অন্যদিকে ফোরামের নেতৃত্ব দিচ্ছেন এবিএম সামছুদ্দিন।

ঢাকার ২৬ পরিচালক পদের জন্য সম্মিলিত পরিষদের প্রার্থীরা হলেন শহিদুল হক, আবদুল্লাহ হিল রাকিব, শহীদুল্লাহ আজিম, নীলা হোসনে আরা, মহিউদ্দিন রুবেল, জাহাঙ্গীর আলম, খন্দকার রফিকুল ইসলাম, শিরিন সালাম, তানভীর আহমেদ, ইন্তেখাবুল হামিদ, কফিল উদ্দিন আহমেদ, ইমরানূর রহমান, আশিকুর রহমান, মিরান আলী, খসরু চৌধুরী, মশিউল আজম, নাছির উদ্দিন, এসএম মান্নান, শোভন ইসলাম, মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন, হারুন অর রশীদ, আরশাদ জামাল, আসিফ আশরাফ, সাজ্জাদুর রহমান মৃধা ও রাজীব চৌধুরী।

অন্যদিকে ফোরামের প্রার্থীরা হলেন ড. রুবানা হক, আনোয়ার হোসেন চৌধুরী, শিহাব উদ্দোজা চৌধুরী, ইনামুল হক খান, ভিদিয়া অমৃত খান, কামাল উদ্দিন, মাশেদ আর. আবদুল্লাহ, এমএ রহিম, শাহ রিয়াদ চৌধুরী, মিজানুর রহমান, খান মনিরুল আলম, এএম মাহমুদুর রহমান, নাফিস উদ দৌলা, আসিফ ইব্রাহিম, মজুমদার আরিফুর রহমান, তাহসিন উদ্দিন খান, নাভিদুল হক, রশীদ আহমেদ হোসাইনী, ইকবাল হামিদ কোরাইশী, মাহমুদ হাসান খান, রেজওয়ান সেলিম, ফয়সাল সামাদ, রানা লায়লা হাফিজ, মেজবাহ উদ্দিন আলী ও নজরুল ইসলাম।

চট্টগ্রামে নয়টি পরিচালক পদের জন্য সম্মিলিত পরিষদের প্রার্থীরা হলেন এএম শফিউল করিম, এম আহসানুল হক, মো. হাসান, রকিবুল আলম চৌধুরী, তানভীর হাবিব, মোহাম্মদ মেরাজ-ই-মোস্তফা, অঞ্জন শেখর দাশ, আবসার হোসেন ও সৈয়দ নজরুল ইসলাম। চট্টগ্রামে ফোরামের প্রার্থীরা হলেন মোহাম্মদ আতিক, মোহাম্মদ আবদুস সালাম, এম মহিউদ্দিন চৌধুরী, এনামুল আজিজ চৌধুরী, শরীফ উল্লাহ, মির্জা মো. আকবর আলী চৌধুরী, মোহাম্মদ দিদারুল আলম, রিয়াজ ওয়ায়েজ ও খন্দকার বেলায়েত হোসেন।

নিউজ হান্ট/এনএইচ