‘ভারতে সবসময় গণতন্ত্রের বিজয় হোক’

17

ভারতের নির্বাচনে সবসময় গণতন্ত্রের বিজয় হোক- এমন প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

আজ রোববার ( ২ মে) রাজধানীর মিন্টু রোডের বাসভবনে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে ভারতের চলমান বিধানসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে মমতা ব্যানার্জীর দল তৃণমূল কংগ্রেসের এগিয়ে থাকার বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে মন্ত্রী একথা বলেন।

পশ্চিমবঙ্গ বা ভারতের যে কোনো নির্বাচন সম্পূর্ণ তাদের আভ্যন্তরীণ বিষয় উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘যারাই ভারতে সরকার গঠন করুন, বাংলাদেশের সাথে ভারতের যে সৌহার্দপূর্ণ সম্পর্ক ও পাশের পশ্চিমবঙ্গের সাথে যে নৈকট্য, তা যেনো আরো গভীরে প্রোথিত হয় এবং আমাদের দু’দেশের অমীমাংসিত বিষয়গুলোর দ্রুত সমাধান হোক, সেটিই আমাদের প্রত্যাশা। আমরা চাই, ভারতে সবসময় গণতন্ত্রের বিজয় হোক।’

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘যে হেফাজত নেতারা বিয়ে ছাড়াই মামুনুল হকের সম্পর্ককে বৈধ বলে ফতোয়া দেন, তারাও আইনের দৃষ্টিতে দুষ্কর্মের সহযোগী হিসেবে চিহ্নিত।’

ভারতের এবার একসঙ্গে পাঁচটি রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন হয়েছে তার মধ্যে তিনটিতেই হেরে গেছে নরেন্দ্র মোদির দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)। পশ্চিমবঙ্গে মমতা ব্যানার্জীর তৃণমূল কংগ্রেসের কাছে ধরাশায়ীর হওয়ার পাশাপাশি আরও দুই রাজ্যে বেহাল অবস্থা গেরুয়া দলের।

কেরালায় বাম জোট এলডিএফ এগিয়ে ৯৬টি আসনে। কংগ্রেসের জোট ইউডিএফ ৪৪ আসনে এবং বিজেপি কোনো আসনে এগিয়ে নেই। কেরালায় পরপর দ্বিতীয়বার সরকার গঠন করতে চলেছেন পিনারাই বিজয়ন।

আসামে কংগ্রেস জোটের থেকে এগিয়ে গেছে বিজেপি। তারা এগিয়ে ৭৫ আসনে, কংগ্রেস জোট ৪৮ আসনে এগিয়ে।

তামিলনাড়ুতে আবার ক্ষমতায় আসতে চলেছে ডিএমকে। ডিএমকে জোট ১৪৭ আসনে এবং এআইএডিএমকে জোট ৮৬ আসনে এগিয়ে। পুদুচেরিতে বিজেপি জোট ৮টি ও কংগ্রেস জোট চারটি আসনে এগিয়ে। পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল তৃতীয়বারের জন্য সরকার গঠন করতে চলেছে। ভোট হওয়া ২৯২ আসনের মধ্যে ২১৫টিতে জিতেছে মমতার দল। বিজেপি পেয়েছে ৭৫ আসন। বাকি দুটি আসনের ফল আসতে এখনো বাকি।

নিউজ হান্ট/আরকে

পূর্ববর্তী নিবন্ধরাজশাহীতে ফ্রুট ব্যাগিং পদ্ধতিতে আম উৎপাদন কার্যক্রমের উদ্বোধন
পরবর্তী নিবন্ধরাবি উপাচার্য ভবনে আবারও তালা