ভার্চুয়াল আদালত: ১২ দিনে ২১ হাজার কারাবন্দির জামিন

10

মহামারি করোনা ভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে নিতে চলমান লকডাউনের ১২তম কার্যদিবসে সারাদেশে অধস্তন আদালত এবং ট্রাইব্যুনালে ৩৮ হাজার ৯৬৬টি মামলায় ভার্চুয়াল শুনানির মাধ্যমে মোট ২১ হাজার ৪৬১ জন হাজতি জামিনপ্রাপ্ত হয়ে কারাগার থেকে মুক্ত হয়েছেন। এর মধ্যে শিশু ২৬৯ জন।

আজ বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) সুপ্রিম কোর্টের মুখপাত্র মুহাম্মদ সাইফুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, গত ১২ এপ্রিল থেকে করোনা সংক্রমণ রোধে দ্বিতীয় দফায় সারাদেশে অধস্তন আদালত এবং ট্রাইব্যুনালে শারীরিক উপস্থিতি ব্যতিরেকে ভার্চ্যুয়াল পদ্ধতিতে জামিন ও অতি জরুরি ফৌজদারি দরখাস্ত শুনানি হচ্ছে।

এর মধ্যে বুধবার ভার্চ্যুয়াল শুনানি নিয়ে সারাদেশে অধস্তন আদালতে দুই হাজার ৭৩৬টি জামিন-দরখাস্ত নিষ্পত্তি হয় এবং তাতে এক হাজার ৪২২ জন অভিযুক্ত ব্যক্তি জামিন পেয়ে কারাগার থেকে মুক্ত হন।

গত ১২ এপ্রিল (সোমবার) থেকে করোনা সংক্রমণ রোধে দ্বিতীয় দফায় সারাদেশে অধস্তন আদালত এবং ট্রাইব্যুনালে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে জামিন ও অতি জরুরি ফৌজদারি দরখাস্তের শুনানি হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গত ১১ এপ্রিল সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন এক বিজ্ঞপ্তি জারি করে। সেখানে বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ মহামারির বিস্তার রোধে ১২ এপ্রিল থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ভার্চুয়াল উপস্থিতির মাধ্যমে জামিন ও অতি জরুরি ফৌজদারি দরখাস্তসমূহ নিস্পত্তি করার উদ্দেশ্যে আদালত ও ট্রাইব্যুনালের কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে।

এছাড়াও সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতায় প্রত্যেক চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট/চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এক বা একাধিক ম্যাজিস্ট্রেট যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে শারীরিক উপস্থিতিতে দায়িত্ব পালন করবেন বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

নিসউজ হান্ট/এনএইচ

পূর্ববর্তী নিবন্ধপতেঙ্গায় তেলের ট্যাংকারে আগুন, নিহত ২
পরবর্তী নিবন্ধটিভিতে আজকের খেলা