মার্চে রেমিট্যান্স এসেছে ১৯১ কোটি ডলার

8

চলতি বছরের স্বাধীনতার মাস মার্চে দেশে ১৯১ কোটি ৬৬ লাখ মার্কিন ডলারের (১৬ হাজার কোটি টাকা) রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। রেমিট্যান্স প্রবাহ স্থিতিশীল থাকায় ঊর্ধ্বমুখী অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ।

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে। বাংলাদেশি মুদ্রায় এক মাসের এই রেমিট্যান্সের পরিমাণ ১৬ হাজার ২৯১ কোটি টাকা (প্রতি ডলার ৮৫ টাকা ধরে)। যা আগের বছরের একই সময়ের চেয়ে ৬৪ কোটি ০৩ লাখ ডলার বেশি। বর্তমানে দেশে রিজার্ভ দাঁড়িয়েছে প্রায় ৪৪ বিলিয়ন ডলার।

২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটে ২ শতাংশ হারে প্রণোদনা ঘোষণা করা হয়। বৈধ উপায়ে প্রবাসী আয় বাড়াতে এমন সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। সে অনুযায়ী, গতবছরের ১ জুলাই থেকে প্রবাসীরা ব্যাংকিং চ্যানেলে টাকা পাঠালে প্রতি ১০০ টাকার বিপরীতে ২ টাকা প্রণোদনা পেয়ে আসছেন। ফলে করোনার মধ্যেও রেকর্ড গড়ছে রেমিট্যান্স।

করোনা মহামারির মধ্যেও রেকর্ড সংখ্যক রেমিট্যান্স আসাকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন বিশিষ্টজনরা। তারা বলছেন, অনেকে মহামারির কারণে একবারের জন্য দেশে চলে এসেছেন। এতে তাদের জমানো টাকাও সঙ্গে এসেছে। সরকারের নগদ প্রণোদনা দেয়ার কারণেও রেমিট্যান্সপ্রবাহ বেড়েছে।

নিউজ হান্ট/কেএইচ