মেলান্দহে স্ত্রীকে হত্যা: স্বামী আ’লীগ নেতার রিমান্ড শুনানি ৮ জুন

91

জামালপুর থেকে শাহ্ জামাল: জামালপুরের মেলান্দহ উপজেলার বহুল আলোচিত গৃহবধূ হত্যা মামলার আসামী আওয়ামী লীগ নেতা আবু তাহেরের (৪২) রিমান্ড শুনানী ৮ জুন মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত হবে। ৭জুন রিমান্ড মঞ্জুরের শুনানী দিন ধার্য ছিল। সেটি পিছিয়ে পরের দিন ধার্য করার কথা জানিয়েছেন-মামলার আইও এসআই জাহিদুল ইসলাম।

অফিসার ইনচার্জ মায়নুল ইসলাম জানান, আবু তাহেরের স্ত্রী তাহমিনা (৩২)কে হত্যার দায়ে মেলান্দহ থানায় মামলাটি দায়ের করেন তাহমিনার বাবা হাসেন আলী।

অভিযুক্ত আবু তাহের শ্যামপুর ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক। সে কাজাইকাটা গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে। আসন্ন শ্যামপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী বলে জানা যায়।

উল্লেখ্য, ১০/১২ বছর যাবত তাদের সম্পর্কের বিয়ে হয়। এই বিয়ে মেনে নিতে পারেনি আবু তাহেরের পিতা-মাতা। বিয়ের পর বিভিন্ন বাসায় ভাড়া থাকতো। গত ঈদের দুইদিন পর তাদেরকে বাড়িতে তোলে আবু তাহেরের পিতা। ওদিকে নিহতের গ্রামের বাড়িতে ঘাতক স্বামী আবু তাহেরের ফাঁসির দাবিতে পোস্টারিং করেছে।

নিহত তাহমিনার খালা শামসুন্নাহার জানান, আবু তাহের তার কাছ থেকে ব্যবসার জন্য ৩ লাখ টাকা নেয়। এই টাকা পরিশোধ যাতে না করতেই আমার ভাগ্নিকে প্রায়ই মারধর করতো। একপর্যায়ে গত ২জুন বেলা ১১টার দিকে আবু তাহের তার স্ত্রী তাহমিনাকে হত্যা করে। গোপনীয়তার মধ্য কবরও খোঁড়া হয়। বিকেল ৩টার দিকে তাহমিনার স্বজন এবং প্রতিবেশীদের না জানিয়েই লাশের গোসল দেয়ার প্রস্তুতি নেয়। এ সময় মানুষের মাঝে হইচই পড়ে যায়। খবর পেয়ে নিহতের স্বজনসহ পাড়াপড়শিরা ভিড় জমায়। ওদিকে তাহমিনার মৃত্যুর বিষয়ে আবু তাহেরের স্বজনদের একেকজন একেক তথ্য প্রচার করতে থাকে। খবর পেয়ে পুলিশ আবু তাহেরকে গ্রেপ্তার এবং লাশ উদ্ধার শেষে মর্গে পাঠানো হয়।

নিউজ হান্ট/কেএইচ

পূর্ববর্তী নিবন্ধটিকটক-লাইকিতে অশ্লীল ভিডিও, রাজশাহীতে নারীসহ ৪ জন গ্রেপ্তার
পরবর্তী নিবন্ধ‘কেউ করে দেবে না, নিজেদেরকেই পরিবর্তন করতে হবে’