রাজধানীতে ২৬-২৭ মার্চ নিয়ন্ত্রিত থাকবে যান চলাচল

14

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আসা বিদেশি ভিভিআইপিদের (অতি গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি) চলাচলের সময় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ও প্রধান সড়কে কিছু সময়ের জন্য চলাচল নিয়ন্ত্রণ ও বন্ধ রাখা হবে। আগামীকাল ২৬ মার্চ ও পরদিন ২৭ মার্চ ঢাকা মহানগরের সড়কে যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হবে।

আজ বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপপুলিশ কমিশনার স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

ডিএমপি জানায়, ২৬ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামবেন। পরে তিনি সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধে শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে যাবেন। স্মৃতিসৌধ থেকে ফিরে তিনি হোটেল সোনারগাঁওয়ে যাবেন। পরে বিকেলে জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন মোদী।

নরেন্দ্র মোদীসহ অন্যান্য বিদেশি অতিথিদের চলাচল নির্বিঘ্ন করতে বিমানবন্দর সড়ক, বিজয় সরণি, মানিক মিয়া অ্যাভিনিউ, রাসেল স্কয়ার, ধানমন্ডি ৩২ নম্বর সড়ক, মিরপুর রোড, কল্যাণপুর, গাবতলী হয়ে ঢাকা–আরিচা মহাসড়কের সাভারের নবীনগর পর্যন্ত যান চলাচল কিছু সময়ের জন্য নিয়ন্ত্রণ ও বন্ধ রাখা হবে।

পরে প্যারেড গ্রাউন্ড থেকে বঙ্গভবনে যাওয়ার পথে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল এলাকার প্রধান সড়ক ও ওই এলাকার উড়ালসড়ক, শহীদ ক্যাপ্টেন মনসুর আলী সরণি, কাকরাইল, বিজয়নগর, পল্টন, গুলিস্তানে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামের পাশের সড়ক ও মৎস্য ভবনের সামনের প্রধান সড়কও কিছু সময়ের জন্য যান চলাচল নিয়ন্ত্রিত বা বন্ধ থাকতে পারে।

এ ছাড়া তাৎক্ষণিক প্রয়োজনে যেকোনো প্রধান সড়কে কিছু সময়ের যান চলাচল নিয়ন্ত্রিত বা বন্ধ থাকতে পারে।

এ ছাড়া ২৭ মার্চ বেলা সাড়ে তিনটায় নরেন্দ্র মোদী প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে যাবেন। সেখান থেকে বিকেল সাড়ে পাঁচটার পর বঙ্গভবনে যাবেন। এরপর সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যাবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

এ সাময়িক অসুবিধার জন্য ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগ আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করেছে।

নিউজ হান্ট/এনএইচ