রাজশাহীতে ফের তুলার গুদামে আগুন

9

মীর তোফায়েল হোসেন (রাজশাহী ব্যুরো প্রধান): রাজশাহীতে এক সপ্তাহের ব্যবধানে আবারো তুলার গোডাউনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে নগরের গণকপাড়া এলাকায় এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। তবে এতে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের একটি ইউনিট দ্রুত গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। যেহেতু ওই গুদামে বিদ্যুৎ সংযোগ নেই তাই ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ধারনা জ্বলন্ত সিগারেটের ফেলে দেয়া অংশের আগুনে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে থাকতে পারে।

এর আগে গত ২৪ মার্চ গণকপাড়া এলাকার আরেকটি তুলার গোডাউনে আগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। দুপুর দেড়টার দিকে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনার পর দমকল বাহিনীর দুইটি ইউনিট একঘণ্টা চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

রাজশাহী ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারী পরিচালক জাকির হোসেন জানান, দুপুর ১২টা ২৩ মিনিটে তুলার গোডাউনে আগুন লাগার খবর পায় দমকল কর্মীরা। সাথে সাথে একটি ইউনিট গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে। আধাঘণ্টার মধ্যে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। দ্রুত আগুন নিয়ন্ত্রণে আসায় বড় ধরণের কোন ক্ষতি বা হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

তিনি বলেন, ওই গোডাউনে তুলা ছাড়াও প্রচুর পরিমাণ নারিকেলের ছোপড়া ছিল। তবে কিভাবে আগুনের সূত্রপাত বা কি পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে প্রাথমিকভাবে তা জানা যায়নি। তদন্ত করে সেটি নিশ্চিত হওয়া যাবে। তবে ওই গোডাউনে বিদ্যুতের সংযোগ নেই। ফলে শর্টসার্কিট থেকে আগুন লাগার সুযোগ নেই। সিগারেট বা বিড়ির শেষ অংশ থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

জাকির হোসেন বলেন, এ ধরণের ঘনবসতি এলাকায় তুলার গোডাউন ঝুঁকিপূর্ণ। গত সপ্তাহে এখানে একটি তুলার গোডাউনে আগুন লাগে। এর পর এখান থেকে এ ধরণের গোডাউন সরানোর জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

(সম্পাদকের বার্তা: এই প্রতিবেদনটি করেছেন নিউজ হান্টের রাজশাহী প্রতিবেদক মীর তোফায়েল হোসেন। এই অঞ্চলের অন্যায়,অনিয়ম অথবা সামাজিক কাজের তথ্য দিতে রাজশাহীবাসী এই নম্বরে যোগাযোগ করতে পারেন: ০১৭৭৮৪৭০৪০১)

নিউজ হান্ট/কেএইচ