সাতক্ষীরায় করোনায় আপন দুই ভাইয়ের মৃত্যু

44

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: করোনা আক্রান্ত হয়ে সাতক্ষীরার শ্যামনগরে আপন দুই ভাইয়ের মৃত্যু হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (৮ জুন) সকালে শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বড় ভাই আবুল কালামের (৩৬) মৃত্যু হয়।

এর আগে সোমবার দুপুরে হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যায় আবুল কালামের দুই বছরের ছোট শোয়েব হাসান (৩৪)।

তারা দুই ভাই ছিলেন শ্যামনগর উপজেলার পদ্মপুকুর ইউনিয়নের পশ্চিম পাতাখালি গ্রামের মৃত আবদুল আউয়ালের ছেলে।

নিহতদের পরিবার সূত্রে প্রাথমিকভাবে দাবি করা হয়েছিল জ্বরে আক্রান্ত হওয়ার পর থেকে গত ১২ দিন ধরে তারা দুই ভাই অভুক্ত অবস্থায় ছিল। শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্র নিশ্চিত করেছে করোনা আক্রান্ত হওয়ার কারণে গত দুই দিনে ওই দুই ভাইয়ের মৃত্যু হয়েছে।

নিহতদের পরিবার ও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায় ১২ দিন ধরে অভুক্ত থাকায় শারীরিকভাবে প্রতিবন্ধী ওই দুই ভাই অসুস্থ হয়ে পড়ে। একপর্যায়ে তাদের অবস্থার অবনতি হলে সোমবার দুপুরের দিকে তাদেরকে শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। এসময় চিকিৎসকরা পথিমধ্যে শোয়েব হাসানের মৃত্যু হয়েছে জানিয়ে তাঁর বড় ভাই আবুল কালামকে হাসপাতালে ভর্তি করার পরামর্শ দেয়।

সংশ্লিষ্টরা আরও জানায় সোমবার বিকেলে শোয়েব হোসেনের মৃতদেহ বাড়িতে নিয়ে দাফন করা হয়। এদিকে রাতে শ্যামনগর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আবুল কালামের শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হয় এবং মঙ্গলবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে কর্মরত চিকিৎসক ডাক্তার শাকির হোসেন জানান সন্দেহবশত আবুল কালামের নমুনা নিয়ে পরীক্ষার পর তার করোনার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়। একইভাবে আগের দিন মৃত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসা শোয়েব হাসানের সংগৃহীত নমুনা পরীক্ষার পর তারও করোনার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়।

সাকির হোসেন আরো জানান রোগীর স্বজনরা উপসর্গ থাকার বিষয়টি নিশ্চিত না করায় তাদেরকে অন্যদের মতো সাধারণ চিকিৎসা দেয়া হয়েছিল। পরীক্ষার ফলাফলে তাদের করোনার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়াতে হাসপাতালের জরুরি বিভাগ ও তাদের ব্যবহৃত বেডসহ অপরাপর অংশ পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করার কাজ শুরু হয়েছে।

পূর্ববর্তী নিবন্ধলকডাউনেও থামছে না করোনার দাপট
পরবর্তী নিবন্ধদেশে ভ্যাকসিনের কোনো সংকট সৃষ্টি হবে না: কাদের