সালিসে জামাতার কোপে শাশুড়ির মৃত্যু

15

দুই বিয়েকে কেন্দ্র করে সালিস বৈঠকে শাশুড়ি ও স্ত্রীকে কুপিয়েছেন এক ব্যক্তি। এতে শাশুড়ি নিহত হয়েছেন এবং স্ত্রীকে গুরুতর আহত অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় পদুয়া ইউনিয়নের সুখবিলাস পূর্বপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, প্রবাসী মো. জাকের হোসেনের (৩০) দুই বিয়েকে ঘিরে স্থানীয়ভাবে সালিস চলাকালে তার দায়ের কোপে শাশুড়ি আছমা খাতুন (৫০) ও স্ত্রী রিপা আক্তার (২৪) গুরুতর আহত হন। তাদের উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার ভোররাত ৩টায় শাশুড়ি আছমা খাতুন মারা যান।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাঙ্গুনিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব মিল্কি।

তিনি জানান, পূর্বপাড়া গ্রামের আবদুল খালেকের ছেলে জাকের হোসেন পারিবারিকভাবে বিয়ে করেন রিপা আক্তারকে। কয়েক বছর আগে সে কাতার চলে যায়। তাদের সংসারে দুটি সন্তানও রয়েছে। কাতার যাবার আগে একই এলাকার আরেক নারীকে গোপনে বিয়ে করেন জাকের।

কিছুদিন আগে সে কাতার থেকে দেশে আসলে গোপন বিয়ের খবর জানাজানি হয়। এ নিয়ে প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে তার ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকত। বৃহস্পতিবার রাতে বাড়ির উঠোনে বিরোধ মিমাংসায় সালিসি বৈঠক বসে দুইপক্ষ। এ সময় কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ঘর থেকে একটি ধারালো দা এনে শাশুড়ি আছমা খাতুন ও স্ত্রী রিপা আক্তারকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে রক্তাক্ত করে পালিয়ে যায় জাকের। পরে স্থানীয় লোকজন দুজনকে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার ভোররাত ৩টায় আছমা খাতুনের মৃত্যু হয়।

ওসি জানান, এ ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামিকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

নিউজ হান্ট/কেএইচ

পূর্ববর্তী নিবন্ধজিমে একসঙ্গে সারা-জাহ্ণবী, ভিডিও ভাইরাল
পরবর্তী নিবন্ধখালেদা জিয়ার বাসার সবাই করোনামুক্ত