মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২১

স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে এমপি হারুনের ১২ দফা

আরও পড়ুন

বাংলাদেশের বর্তমান স্বাস্থ্যসেবার বেহাল অবস্থা থেকে উত্তরণে সংসদে ১২ দফা প্রস্তাব উত্থাপন করেছেন বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্য হারুন উর রশিদ। আজ বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) একাদশ জাতীয় সংসদের চতুর্দশ অধিবেশনে বক্তব্য রাখার সময় তিনি এ প্রস্তাব করেন।

হারুন বলেন, বাংলাদেশের বর্তমান স্বাস্থ্যসেবার বেহাল অবস্থা থেকে উত্তরণে দ্রুত উদ্যোগ গ্রহণ করা প্রয়োজন। জনগণের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করা সরকারের সাংবিধানিক দায়িত্ব ও কর্তব্য। স্বাস্থ্যসেবার এই বেহাল অবস্থার কারণে বাংলাদেশ থেকে প্রতিবছর লাখ লাখ মানুষ চিকিৎসার জন্য ভারত, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুরসহ বিভিন্ন দেশ গমন করছে। ফলে জনগণের একদিকে যেমন ভোগান্তি, অন্যদিকে ব্যয়বহুল চিকিৎসায় আমাদের কষ্টার্জিত বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার বৈদেশিক মুদ্রা বাহিরে চলে যাচ্ছে। যা অর্থনীতির জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর।

এসময় এমপি হারুন স্বাস্থ্যখাতের আধুনিকায়ন ও সকল অসঙ্গতি দূর করতে নিম্ম লিখিত প্রস্তাবসমূহ সংসদে তুলে ধরেনঃ-

১. ক্যাডার সার্ভিস বিলুপ্ত করে জুডিশিয়াল সার্ভিস ও আর্ম সার্ভিসের মতো স্বতন্ত্র হেলথ সার্ভিস তৈরি করা খুবই প্রয়োজন।

২. সরকারি চিকিৎসক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তির সময় কমপক্ষে ১৫ বছর প্রাইভেট প্রাকটিস বন্ধের শর্ত আরোপ করে নিয়োগ প্রদান নিশ্চিত করা দরকার।

৩. বিষয়ভিত্তিক চিকিৎসক নিয়োগ নিশ্চিত করা দরকার।

৪. যোগ্যতা অনুযায়ী মূল্যায়ণ পদ্ধতি নিশ্চিত করা দরকার।

৫. অতিদ্রুত হাসপাতালগুলোতে যে জনবল ঘাটতি রয়েছে তা দূর করার যথাযথ উদ্যোগ গ্রহণ করা দরকার।

৬. হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা কমিটি শক্তিশালী করা দরকার।

৭. প্রতি অর্থবছরে হাসপাতালের সেবা গ্রহীতার অনুপাতে কিছু অর্থ বরাদ্দ করা প্রয়োজন।

৮. হাসপাতালের সার্ভিস চার্জ বৃদ্ধি করে প্রকৃত সেবা নিশ্চিত করা প্রয়োজন।

৯. ডাক্তার ও স্বাস্থ্যকর্মীদের সরকারিভাবে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা গ্রহণ ও হাসপাতালের সকল কর্মকর্তা কর্মচারীকে হাসপাতাল প্রধানের কাছে ন্যস্ত করা প্রয়োজন।

১০. সরকারি চিকিৎসকদের হাসপাতালে অতিরিক্ত সময় প্রাকটিস নীতিমালা প্রয়োজন।

১১. সরকার কর্তৃক সম্মানী নির্ধারণ করা প্রয়োজন।

১২. যেখানে সেখানে মানহীন ও অনুমোদনহীন ক্লিনিক বন্ধ করার প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করা প্রয়োজন।

নিউজ হান্ট/আরকে

সর্বশেষ