স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে আছেন খালেদা জিয়া: ফখরুল

6

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়া করোনা থেকে মুক্তি পেয়েছে অনেক আগেই। তবে পুরনো রোগের জটিলতায় স্বাস্থ্য ঝুঁকিতেই আছেন তিনি। বর্তমানে তিনি রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

আজ শুক্রবার (১১ জুন) সকালে গুলশানে চেয়াপারসনের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন তিনি এ কথা জানান।

চেয়ারপারসনের সর্বশেষ শারীরিক অবস্থা জানাতে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় ফখরুল বলেন, ম্যাডামের মেডিকেল বোর্ডের সর্বশেষ বক্তব্য হচ্ছে, উনার মিনিমাম যে প্যারামিটারগুলো আছে পোস্ট কোবিডের থেকে উনি মোটামুটি বেটার। ফান্ডামেন্টাল কিছু সমস্যা রয়েছে যে সমস্যাগুলো উদ্বেগজনক। একটা হচ্ছে তার হার্টের প্রবলেম, আরেকটা কিডনির প্রবলেম। এই দুইটি নিয়ে মেডিকেল বোর্ড উদ্বিগ্ন আছেন। উনার মনে করছেন যে, বাংলাদেশে যে হাসপাতালগুলো আছে, এডভান্স সেন্টারগুলো আছে, সেগুলো যথেষ্ট নয় উনার ট্রিটমেন্টের জন্য।

তিনি বলেন, বিশেষজ্ঞরা বার বার বলছেন যে, উনার (খালেদা জিয়া) এডভান্স টিট্রমেন্ট দরকার, তার অসুখগুলো নিয়ে এডভান্স সেন্টারে যাওয়া জরুরি। আমরা সেটা বার বার বলছি।

২৬ মার্চ (ভারতের প্রধানমন্ত্রী) নরেন্দ্র মোদির সফরের দিন বাংলাদেশে যে ঘটেছে, সেটা ছিল পরিকল্পিত উল্লেখ করে মহাসচিব বলেন, আপনারা বলছেন ‘হেফাজতের তাণ্ডব’। আমি এ কথার সঙ্গে একমত নই। তাণ্ডব করেছে সরকার। অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে সরকার এ তাণ্ডব চালিয়েছে। যখন হেফাজতে ইসলাম ও বাম দলের লোকজন মোদির সফরের বিরোধিতা করে, তখন সরকারি দলের লোক হেফাজতের লোকজনের ওপর হামলা চালিয়েছে। তাণ্ডব চালিয়ে ঢাকা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও হাটহাজারীতে ২০ জনকে হত্যা করেছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সরকার আলেম-ওলামা এবং বিএনপির নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার শুরু করেছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, আজকে যারা ক্ষমতা আছে, তারা দেশটাকে একটা অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করেছে। গণতন্ত্রের নামে গণতন্ত্রের কবর রচনা করেছে। দেশকে ধ্বংস করে দিয়েছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, আমাদের নারী ও শিশু অধিকার পরিষদের সদস্য সচিব নিপুন রায়কে হেফাজতের ঘটনায় ইন্ধন দেওয়ার কথিত অভিযোগে গ্রেপ্তার করে রিমান্ডে নিয়েছে। অথচ সেই রিমান্ড আর শেষ হয় না। তাকে পরিকল্পিতভাবে, সুচিন্তিতভাবে আটক করে রাখা হয়েছে। কারণ তারা বলতে চায় ‘তুমি (নিপুন রায়) একজন হিন্দু নারী, আমাদের (সরকারের) বিরুদ্ধে কথা বলো কেন?

নিউজ হান্ট/এনএইচ

পূর্ববর্তী নিবন্ধমাদকবাহী মাইক্রোবাসের ধাক্কায় প্রাণ হারালেন এএসআই
পরবর্তী নিবন্ধজনগণ যাদের নির্বাচিত করবে তারাই পরবর্তী সরকার গঠন করবে: কাদের