২৪ মার্চ ইতিহাসের কালো অধ্যায়: ফখরুল

13

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বাংলাদেশের রাজনীতির ইতিহাসে ২৪ মার্চ দিনটি কালো অধ্যায়।

তিনি বলেন, ১৯৮২ সালের এ দিনে তৎকালীন সেনাপ্রধান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ জনগণের ভোটে নির্বাচিত রাষ্ট্রপতি ও সরকারকে বন্দুকের নলের মুখে অবৈধভাবে ক্ষমতাচ্যুত করে শহীদ জিয়ার পুণরুজ্জীবিত বহুদলীয় গণতন্ত্রকে হত্যা করেছিলেন।

আজ বুধবার (২৪ মার্চ) দলের ভারপ্রাপ্ত দফতর সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স স্বাক্ষরিত ‘কালো দিবস’ উপলক্ষে এক বাণীতে এ কথা বলেন তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, ১৯৮২ সালের ২৪ মার্চ বহুদলীয় গণতন্ত্রকে হত্যা করে সংবিধান স্থগিত করে কেড়ে নেওয়া হয়েছিল বাক, ব্যক্তি, বিবেক, মুদ্রণ ও সমাবেশের স্বাধীনতাসহ মানুষের সব নাগরিক স্বাধীনতা। স্বৈরাচার এরশাদের অবৈধ ক্ষমতা দখলের এই দিনটি জাতির ইতিহাসে কালো দিবস হিসেবে চিহ্নিত।

দেশে মানুষের বাক, ব্যক্তি ও মত প্রকাশের স্বাধীনতাসহ সকল নাগরিক স্বাধীনতা অপহৃত হয়েছে বলে মন্তব্য করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, নব্বইয়ের পতিত স্বৈরশাসকের সঙ্গে অভিন্ন বৈশিষ্ট্যের বর্তমান অগণতান্ত্রিক শাসকগোষ্ঠীর আঁতাত পুনরায় বহুমাত্রিক গণতন্ত্রের পথচলাকে আটকিয়ে দেশের মানুষকে খাঁচায় বন্দী করেছে। গণতন্ত্র চিরস্থায়ীভাবে দেশ থেকে বিদায় করে দেয়ার লক্ষ্যে বারবার যিনি গণতন্ত্রকে স্বৈরাচারের বন্দীশালা থেকে মুক্ত করেছেন সেই আপোষহীন নেত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে আটক করে রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, আমি আজকের এই কালো দিনে দল, মত, শ্রেণি, পেশা নির্বিশেষে সব পর্যায়ের মানুষকে ঐক্যবদ্ধভাবে বর্তমান দুঃশাসন থেকে মুক্তি পেতে সংগ্রামী অভিযাত্রায় সামিল হওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।

নিউজ হান্ট/এনএইচ