রবিবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২১

অনুপস্থিতি কেটে উপস্থিতি, বাধা দেওয়ায় প্রধান শিক্ষককে ঘুষি

আরও পড়ুন

অনুপস্থিতি কেটে উপস্থিতির স্বাক্ষর করতে নিষেধ করায় লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলায় সহকারী শিক্ষকের ঘুষিতে রক্তাক্ত প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম (৫৮) হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

সোমবার (১৫ নভেম্বর) সকালে উপজেলার নামুড়ী স্কুল অ্যান্ড কলেজে এ ঘটনা ঘটে।

আহত প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম উপজেলার ভাদাই ইউনিয়নের আদিতমারী আদর্শপাড়া গ্রামের মৃত হাসমত উল্লাহর ছেলে। তিনি নামুড়ি উচ্চবিদ্যালয় ও কলেজের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করছেন।

থানায় অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, আদিতমারী উপজেলার নামুড়ি উচ্চবিদ্যালয় ও কলেজের সহকারী শিক্ষক ভূপতি রঞ্জন রায় গত বছর নারীঘটিত কারণে সাময়িক বরখাস্ত হন। কয়েক মাস আগে সেই আদেশ স্থগিত করে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। কিন্তু এরপরও দীর্ঘদিন তিনি বিদ্যালয়ে আসেননি। ফলে নিয়মানুযায়ী হাজিরাখাতায় তাঁর নামের বিপরীতে অনুপস্থিত লিখে রাখেন প্রধান শিক্ষক (ভারপ্রাপ্ত) নজরুল ইসলাম।

সকালে বিদ্যালয়ে এসে হাজিরাখাতা নিয়ে অনুপস্থিতি কেটে স্বাক্ষর করার চেষ্টা করেন সহকারী শিক্ষক ভূপতি রঞ্জন রায়। এতে বাধা দিলে প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলামকে এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি মারেন। এতে নাক ফেটে রক্ত ঝরতে থাকে। চিৎকার শুনে পাশের কক্ষ থেকে শিক্ষকেরা এসে প্রধান শিক্ষককে উদ্ধার করে আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

এ ঘটনায় বিচার চেয়ে প্রধান শিক্ষক (ভারপ্রাপ্ত) নজরুল ইসলাম অভিযুক্ত সহকারী শিক্ষকের বিরুদ্ধে আদিতমারী থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

নামুড়ি উচ্চবিদ্যালয় ও কলেজের পরিচালনা কমিটির সদস্য ইকবাল হোসেন বিপ্লব বলেন, বিদ্যালয়ে অনিয়মিত থাকার কারণে সহকারী শিক্ষক ভূপতিকে বারবার মৌখিকভাবে বলা হয়েছে। কিন্তু তিনি তা শোনেননি। নিয়মানুযায়ী অনুপস্থিত শিক্ষক কর্মচারীদের হাজিরাখাতা ঠিক রাখতে কমিটির সিদ্ধান্ত হয়। সে অনুযায়ী প্রধান শিক্ষক দীর্ঘদিন অনুপস্থিত ভূপতির নামের বিপরীতে অনুপস্থিত লিখেছেন। এ কারণে ভূপতি প্রধান শিক্ষকের ওপর চড়াও হয়েছেন। থানায় অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকেও ভূপতির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আদিতমারী থানার ওসি মোক্তারুল ইসলাম বলেন, ‘অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

নিউজ হান্ট/ম

সর্বশেষ