বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২০, ২০২২

‘আরো ১০০ রান করতে পারলে ভিন্ন কিছু হতো’

আরও পড়ুন

বিদায় নিচ্ছেন সানিয়া মির্জা

আইসিসির বর্ষসেরা টি-টোয়েন্টি দলে মোস্তাফিজ

টানা দ্বিতীয় জয় মেয়েদের

সাদা পোশাকের ক্রিকেট এলেই সেই চিরাচরিত ফল। পরাজয়ের বিবর্ণ গল্প ছাড়া আর কিছুই নেই। প্রথম ইনিংসে ৪৪ রান লিড থাকার পরেও ব্যাটারদের ভয়াবহ ব্যর্থতায় দ্বিতীয় ইনিংসে পাকিস্তানকে ২০২ রানের বেশি লক্ষ্য দিতে পারেনি স্বাগতিকরা। যা মাত্র ২ উইকেট হারিয়েই ছুঁয়ে ফেলেছে বাবর আজমের দল।

বাংলাদেশ অধিনায়ক মুমিনুল হকের মতে, আর ১০০ রান বেশি করতে পারলে ম্যাচের চিত্রটা ভিন্ন হতে পারতো। ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে মুমিনুল বলেছেন, ‘(দ্বিতীয় ইনিংসেও) উইকেট ব্যাটিং সহায়ক ছিল। আমরা যদি ১০০ রান বেশি করতে পারতাম তাহলে খেলাটি ভিন্ন হতে পারতো।’

ম্যাচের দুই ইনিংসেই টপ অর্ডাররা ব্যর্থ। দুই ওপেনার সাদমান ইসলাম-সাইফ হাসান রান পাননি। তিনে নামা নাজমুল হোসেন শান্ত ছিলেন নিজের ছায়া হয়ে। আর অধিনায়ক মুমিনুল নিজেও দলের বিপদে হাল ধরতে পারেননি। আউট হয়ে উল্টো আরো বিপদ বাড়িয়েছেন।

ব্যাট হাতে রান করে আরো বড় লজ্জা থেকে রক্ষা করেছেন মিডল অর্ডার ও টেল এন্ডার ব্যাটসম্যানরা। মুমিনুলও ম্যাচ হারের দায় দিয়েছেন দুই ইনিংসের শুরুর ঘণ্টাকে। যেখানে অল্পেই ফিরে গেছেন টপঅর্ডার ব্যাটাররা।

মুমিনুলের ভাষ্য, ‘আমার মতে, দুই ইনিংসেই প্রথম ঘণ্টায় আমরা ম্যাচটি হেরে গেছি। প্রথম ইনিংসে মুশফিক ও লিটন খুব ভালো খেলেছে। তারা দারুণ জুটি গড়েছে। দ্বিতীয় ইনিংসে… আমার মতে প্রথম চার ব্যাটারকে এগিয়ে আসতে হবে।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘আমাদের শক্তির জায়গা ব্যাটিং। এই জায়গায় উন্নতি করতে হবে। বিশেষ করে নতুন বলের বিপক্ষে। তবে হাসান আলি ও শাহিন আফ্রিদিও ভালো বোলিং করেছে।’

নিউজ হান্ট/ইস

সর্বশেষ

বিদায় নিচ্ছেন সানিয়া মির্জা

করোনায় একদিনে বিশ্বে ৩২ লাখ শনাক্ত

সন্তান ধারনে এইডস আক্রান্ত নারীর ঝুঁকি অনেক বেশি

কর্মবিরতির হুমকি রেল কর্মীদের

দেশে চা উৎপাদনে নতুন রেকর্ড