বুধবার, ডিসেম্বর ১, ২০২১

ইতিহাস গড়ার দ্বারপ্রান্তে সাকিব

আরও পড়ুন

আর মাত্র ২ উইকেট পেলেই আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির খেতাবটা নিজের করে নিবেন বাংলাদেশের সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। শুধু তাই নয়, ওমান ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে ১০টি উইকেট পেলেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারের রেকর্ডও গড়বেন সাকিব।

দেশের হয়ে ৮৪ ম্যাচে ১০৭টি উইকেট নিয়ে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারীর তালিকায় রয়েছের শ্রীলঙ্কার লাসিথ মালিঙ্গা। যেখানে সাকিব আল হাসানের শিকার ৮৮ ম্যাচে ১০৬ উইকেট। অর্থাৎ, আর মাত্র ২টি উইকেট পেলেই মালিঙ্গাকে টপকিয়ে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী হবেন সাকিব।

এছাড়া বর্তমানে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারের মালিক পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহিদ আফ্রিদি। ৩৪ ম্যাচে ৩৯ উইকেট শিকার করেছেন তিনি। আর ২৫ ম্যাচে সাকিবের শিকার ৩০ উইকেট। আফ্রিদিকে টপকাতে আরও ১০টি উইকেট প্রয়োজন সাকিবের।

চলতি বিশ্বকাপে আফ্রিদিকে টপকে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী হওয়া সাকিবের জন্য কঠিন হলেও এক বিশ্বকাপে ১০ উইকেট নেওয়ার রেকর্ড আছে সাকিবের। ২০১৬ বিশ্বকাপে ১০ উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। আর ২০১৪ সালে বাংলাদেশে হওয়া বিশ্বকাপে ৮ উইকেট নিয়েছিলেন সাকিব।

এদিকে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলতে নামার আগে শ্রীলঙ্কা ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে দু’টি অফিসিয়াল প্রস্তুতিমূলক ম্যাচে হারের লজ্জা পেয়েছে বাংলাদেশ। যদিও দুই ম্যাচে ছিলেন না সাকিব আল হাসান।

প্রস্তুতি ম্যাচে না থাকলেও স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু হওয়া বাংলাদেশের বিশ্বকাপে থাকছেন সাকিব আল হাসান। ফলে প্রথম ম্যাচেই আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির রেকর্ড বনে যেতে পারেন টাইগারদের সেরা অলরাউন্ডার।

নিউজ হান্ট/ইস

সর্বশেষ