বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২০, ২০২২

কলকাতা ছেড়েছে সাকিবকে, রাজস্থান মুস্তাফিজকে

আরও পড়ুন

বিদায় নিচ্ছেন সানিয়া মির্জা

আইসিসির বর্ষসেরা টি-টোয়েন্টি দলে মোস্তাফিজ

টানা দ্বিতীয় জয় মেয়েদের

আইপিএলের ১৫তম আসর হবে ১০ দল নিয়ে। মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত আগের ৮ দল তাদের ধরে রাখা খেলোয়াড়দের তালিকা চূড়ান্ত করার সময় পেয়েছে। এরইমধ্যে সব দলের রিটেনশন লিস্ট চূড়ান্ত হয়েছে।

কলকাতা নাইট রাইডার্সও চূড়ান্ত করেছে লিস্ট। এই প্রক্রিয়ায় দল থেকে বাদ পড়েছেন সাকিব আল হাসান। একইভাবে রাজস্থান মুস্তাফিজুর রহমানকে।

সাকিব গত মৌসুমে খেলেছেন কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে। টুর্নামেন্টের ভারত পর্বে ব্যাট-বল হাতে খুব বেশি আলো ছড়াতে পারেননি তিনি। ভারত পর্বে ৩ ম্যাচে ব্যাট হাতে মাত্র ৩৮ রান ও বল হাতে ২ উইকেট নেন তিনি। ফলে একাদশ থেকে জায়গাও হারান সাকিব।

সুযোগ পেয়ে তুলনামূলক ভালো করেন সাকিব। তার দলও খেলেছে প্রতিযোগিতাটির ফাইনালে। এবার সেই কলকাতা ছেড়ে দিয়েছে সাকিবকে। প্রতিযোগী দলগুলোকে খেলোয়াড় ধরে রাখার জন্য মঙ্গলবার পর্যন্ত সময় বেঁধে দেওয়া হয়।

গত আসর থেকে প্রতি ফ্র্যাঞ্চাইজিকে সর্বোচ্চ চার জন খেলোয়াড় ধরে রাখার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল। কলকাতা চারজনকে এবার ধরে রেখেছে। তারা হলেন-ওয়েস্ট ইন্ডিজের সুনিল নারাইন, আন্দ্রে রাসেল এবং ভারতের বরুন চক্রবর্তী ও ভেঙ্কাটেশ আইয়ার।

মুস্তাফিজুর রহমান গত আইপিএলে রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে দারুণ ফর্মে ছিলেন। এক প্রকার তিনি দলের পেস অ্যাটাককে নেতৃত্ব দিয়েছেন। সেই রাজস্থানও ধরে রাখেনি কাটার মাস্টারকে। তারা একজন বিদেশিসহ ধরে রেখেছে সাঞ্জু স্যামসন, জস বাটলার ও জয়সওয়ালকে।

মুস্তাফিজ আইপিএলের গত আসরে রাজস্থানের হয়ে ৮.৪১ ইকোনমিতে নিয়েছেন ১৪ উইকেট। নিলামে তাকে ১ কোটি রুপিতে দলে নিয়েছিল রাজস্থান।

২০১৬ আসরে ১ কোটি ৪০ লাখ রুপিতে মুস্তাফিজকে কিনেছিল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। আইপিএল অভিষেকেই বাজিমাত করেন তিনি। পুরো টুর্নামেন্টে শিকার করেছিলেন ১৭ উইকেট, হয়েছিলেন সেরা ইমার্জিং প্লেয়ার।

নিউজ হান্ট/ম

সর্বশেষ

বিদায় নিচ্ছেন সানিয়া মির্জা

করোনায় একদিনে বিশ্বে ৩২ লাখ শনাক্ত

সন্তান ধারনে এইডস আক্রান্ত নারীর ঝুঁকি অনেক বেশি

কর্মবিরতির হুমকি রেল কর্মীদের

দেশে চা উৎপাদনে নতুন রেকর্ড

স্বেচ্ছায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে শিল্পীর মৃত্যু