সোমবার, ডিসেম্বর ৬, ২০২১

কেন্দুয়ায় কুড়িয়ে পাওয়া সেই নবজাতকের বাবা-মা আটক

আরও পড়ুন

কেন্দুয়া (নেত্রকোনা) থেকে হুমায়ুন কবির: নেত্রকোনার কেন্দুয়ার একটি ধানক্ষেতে নবজাতককে কুড়িয়ে পাওয়ার ঘটনায় শিশুটির প্রকৃত বাবা-মাকে আটক করা হয়েছে।

এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে শিশুটির বাবা-মাসহ চারজনের বিরুদ্ধে ২০১৩ সালের শিশু আইনের ৭০ ধারায় মামলা দায়ের করে। আটককৃতরা হলেন, কেন্দুয়া উপজেলার গোগ গ্রামের মো. আব্দুল হকের ছেলে আল মোমেন (২৪) ও তার স্ত্রী জান্নাত আক্তার শিলা (১৯)। মামলার আরও দুই আসামী হলেন— মোমেনের মা শারমিন আক্তার (৫০) ও শিলার মা শিল্পী আক্তার (৪০)।

জানা গেছে, কেন্দুয়া থানার এসআই শফিউল আলম বাদী হয়ে সোমবার রাতে (১৫ নভেম্বর) শিশুর মা, বাবা,   দাদী এবং নানীকে আসামী করে মামলাটি দায়ের করেন।  শিশুটিকে অমানবিকভাবে ফেলে রাখা ও নিষ্ঠুরতার দায়ে থানায় মামলা দায়েরের পর তার বাবা-মাকে আটক করা হয়।

কেন্দুয়া থানার ওসি কাজী শাহনেওয়াজ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, পুলিশ সুপার মো. আকবর আলীর নির্দেশনায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় সামাজিক অপরাধ নিয়ন্ত্রণে তদন্ত করে নবজাতকের বাবা-মাকে বের করার (শনাক্ত) পর শিশু আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ওসি আরো জানান, আটক দুজনের মাদেরকেও (৪০) আটকের চেষ্টা চলছে।

তারা গত ৭ নভেম্বর শিশুটি জন্ম নিলে নবজাতক শিশুকে ধানক্ষেতে ফেলে দেয়।

>>> আরও পড়ুন: কেন্দুয়ায় ধান ক্ষেতে পাওয়া নবজাতক শিশুটিকে দত্তক চান অনেকে

জানা যায়, গত ২২ জুলাই গোগ গ্রামের মো. আব্দুল হকের ছেলে মোমেনের সাথে জালালপুর গ্রামের খোকন মিয়ার মেয়ের বিয়ে হয়। কিন্তু বিয়ের বয়স মাত্র কয়েক মাস হতেই তারা বাবা মা হয়ে পড়ায় সামাজিক ভয়ে ছেলে নবজাতককে জন্মের পরপরই তারা ধানক্ষেতে ফেলে দেয়।

ওই ‍দিন বিকেলে আদমপুর এলাকায় খান এন্ড পন্ডিত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠের পাশের একটি ধানক্ষেত থেকে ওই নবজাতকটি উদ্ধার করে স্থানীয় লোকজন পরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

সেখানে সমাজ সেবার উদ্যোগে কর্তব্যরত চিকিৎকরা নবজাতকটিকে চিকিৎসা ও সেবা দিয়ে হাসপাতালেই রাখেন। পরবর্তীতে নিউজ হান্টসহ বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে এ নিয়ে সংবাদ প্রকাশিত হয়। শিশুটি দত্তক নিতে অনেকেই এগিয়ে আসেন।

এদিকে পুলিশ বিষয়টি আমলে নিয়ে তদন্ত সাপেক্ষে শিশুটির প্রকৃত মা-বাবাকে শনাক্ত করতে সক্ষম হয়। পরবর্তীতে সোমবার (১৫ নভেম্বর) রাতে অভিযুক্তদের আটক করা হয়।

নিউজ হান্ট/এএস

সর্বশেষ