রবিবার, নভেম্বর ২৮, ২০২১

কেন্দুয়ায় যুবক খুনের ঘটনায় একজন আটক

আরও পড়ুন

কেন্দুয়া (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি: নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে রোকন উদ্দিন (৩৫) নামে এক যুবক খুনের ঘটনায় মেহেদী হাসান জয় নামে একজনকে আটক করেছে কেন্দুয়া থানার পুলিশ।

আটককৃত মেহেদী হাসান জয় উপজেলার নওপাড়া ইউনিয়নের কাউরাট (ইটাচকি) গ্রামের শফিকুল ইসলাম ছেলে।

পুলিশ সুত্রে জানা যায়, মেহেদী হাসান জয়কে বুধবার (২৪ নভেম্বর) রাতে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে আটক করা হয়েছে

এ বিষয়ে আজ বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) বিকালে উপজেলার কাউরাট গ্রামের আব্দুল আউয়াল জানান, বুধবার সন্ধ্যার দিকে উপজেলার নওপাড়া ইউনিয়নের নওপাড়া বাজারে নওপাড়া দূর্গাপুর মোড় রাস্তার পাশের একটি পরিত্যক্ত সম্ভাব্য জুতার ফ্যাক্টরিতে আওয়ামী লীগ নেতা ও নওপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী তাজুল ইসলাম তাজুর চেম্বারের পাশেই উপজেলার দুর্গাপুর গ্রামের রোকন উদ্দিনকে উপজেলার কাউরাট( ইটাচকি) গ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে মেহেদী হাসান জয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করেছে। তবে কি বিষয় নিয়ে এ ঘটনা ঘটেছে তা তিনি স্পষ্ট করে বলতে পারেননি।

তিনি আরো বলেন, ঘটনার কিছুক্ষণ আগেও দেখেছি কাউরাট গ্রামের বাচ্চু মিয়ার ছেলে রাকিব মিয়া ও দুর্গাপুর গ্রামের রোকন উদ্দিন নওপাড়া বাজারে একসাথে ঘুরাঘুরি করতে। এর কিছুক্ষণ পর ওই ঘটনার কথা জানতে পারি।

এ বিষয়ে তিনি আরো বলেন, নওপাড়া বাজারে বেশ কয়েটি গুরুত্বপূর্ণ রাস্তায় সিসি ক্যামেরা লাগানো আছে। প্রশাসন ইচ্ছে করলে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে এ ঘটনার সাথে কে বা কারা জড়িত বা রোকন উদ্দিন কে বা কারা খবর দিয়ে ঘটনার স্থলে নিয়ে এসেছে তা খতিয়ে দেখতে পারেন।

তাছাড়া একজন রাজনৈতিক নেতা এবং ইউপি নির্বাচনে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীর চেম্বারের পাশে ঘটনায় স্থানীয় জনমনে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

কেন্দুয়া থানা ওসি (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, রোকন উদ্দিন খুনের ঘটনায় মেহেদী হাসান জয়কে ময়মনসিংহ থেকে আটক করা হয়েছে এবং জিজ্ঞাসাবাধ চলছে। তবে কি নিয়ে ঘটনাটি ঘটে খুন হয়েছে। তা তিনি এখনো আনুষ্ঠানিক ভাবে বলতে চাইছেনা!

নিউজ হান্ট/আরকে

সর্বশেষ