রবিবার, নভেম্বর ২৮, ২০২১

গাড়ি চলছে না সিলেটে, সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ

আরও পড়ুন

সিলেটে ‘কর্মবিরতি’ পালন করছে পরিবহন শ্রমিকরা। চলছে না কোনও গণপরিবহন। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। বিশেষ করে চাকুরীজিবী এবং এসএসসি পরীক্ষার্থীরা পড়েছেন চরম বিপাকে।

সোমবার (২২ নভেম্বর) সকাল ৬টা থেকে পূর্ব ঘোষণা দিয়ে কর্মবিরতি পালন করছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন সিলেট বিভাগীয় কমিটি।

জানা গেছে, আজ সিলেট কুমারগাও বাসস্ট্যান্ড থেকে ছেড়ে যায়নি দুরপাল্লার কোন বাস। কদমতলী কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল থেকেও কোন বাস ছেড়ে যায়নি। মাঝে মাঝে দু’একটি রিকশা চলাচল করতে দেখা গেছে। পরিবহন শ্রমিকদের কর্মবিরতিতে হাসপাতালে থাকা রোগী এবং রোগীদের স্বজনদেরও দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

এদিকে সকাল থেকে সড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে পরিবহন শ্রমিকরা পিকেটিং করছেন বলেও খবর পাওয়া গেছে।

জানা গেছে, সিলেট নগরীর প্রবেশদ্বার টিলাগড় পয়েন্ট, বিমানবন্দর সড়কের বড়শালা বাইপাস, সিলেট সুনামগঞ্জ সড়কের টুকেরবাজার, লামাকাজি, দক্ষিণ সুরমার চন্ডিপুল, নতুন ব্রিজের মোড়সহ বিভিন্ন স্থানে পিকেটিং করেন পরিবহন শ্রমিকরা। এতে সিএনজি অটোরিকশা চলাচলেও বিঘ্ন ঘটছে।

কারো কারো কর্মস্থলে পৌঁছানোর তাড়া, কারো পরীক্ষা, কারো টিকাদানের তারিখ, কারো চিক্ৎিসার জন্য বা জরুরি অন্য কোনও কাজে কোথাও যাওয়া লাগবে— রাস্তায় বেরিয়ে সবাই পড়েছেন ভোগান্তিতে।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন সিলেট বিভাগীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক জাকারিয়া আহমদ গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, তাদের এই অনির্দিষ্টকালের পরিবহন শ্রমিকদের কর্মবিরতি পূর্বঘোষিত। গত ৯ নভেম্বর সিলেটের জেলা প্রশাসক বরাবরে ৫ দফা দাবি সম্বলিত স্মারকলিপি দিয়ে বাস্তবায়নের আল্টিমেটাম দেওয়া হয়। বেঁধে দেওয়া সময়ের মধ্যে দাবি না মানায় অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন শ্রমিকদের কর্মবিরতি আহ্বান করা হয়।

নিউজ হান্ট/এএস

সর্বশেষ