বুধবার, ডিসেম্বর ১, ২০২১

গোপালগঞ্জে ইজিবাইক চালক হত্যার দায়ে ৫ আসামির মৃত্যুদণ্ড

আরও পড়ুন

গোপালগঞ্জে ইজিবাইক চালক জাহিদুল ইসলাম বাবুকে হত্যার দায়ে পাঁচ আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) জেলা ও দায়রা জজ আদালতের অতিরিক্ত বিচার মো. আব্বাস উদ্দীন আট বছর আগের এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন— গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার চন্দ্রদিঘলিয়ার নতুন চর গ্রামের বাবুল ফকিরের ছেলে খালিদ ফকির, আনিচ ফকিরের ছেলে মো. বিপুল ফকির, শুকুর মোল্লার ছেলে রাজ্জাক মোল্লা, জেলার কাশিয়ানী উপজেলার মহেশপুর ইউনিয়নের ব্যাসপুর গ্রামের মো. খলিল শেখের ছেলে মো. হাসান শেখ ও নড়াইল জেলার লোহাগড়া উপজেলার চাচাই গ্রামের মো. খোকন মোল্লার ছেলে মো. ফসিয়ার মোল্লা।

আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মো. শহিদুজ্জামান খান জানান, আসামিরা রায় ঘোষণার সময় আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন না। তারা সবাই পলাতক রয়েছেন।

মৃত্যুদণ্ডের পাশাপাশি প্রত্যেক আসামিকে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা দিয়েছেন বিচারক।

মামলার বিবরণে বলা হয়, ২০১৩ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর খালিদ ফকির মোবাইলে ফোন করে ইজিবাইক চালক জাহিদুল ইসলাম বাবুকে গোপালগঞ্জ শহরের কাঁচা বাজার সংলগ্ন মেইন রোডে যেতে বলেন। পরে জাহিদুল সদর উপজেলার গোলাবাড়ীয়া গ্রামের বাড়ি থেকে ইজিবাইক নিয়ে কাঁচাবাজারে যান। এরপর থেকে জাহিদুল নিখোঁজ ছিলেন।

পরে ২ অক্টোবর পুলিশ ঢাকা খুলনা মহাসড়কের গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার ভুলবাড়ীয়া ব্রিজের সড়কের পাশ থেকে বাবুর লাশ উদ্ধার করে।

ওইদিনই জাহিদুলের বাবা মো. নজরুল খালিদ ফকির ও রাজ্জাক মোল্লাকে আসামি করে গোপালগঞ্জ সদর থানায় হত্যা মামলা করলে তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

পরে তাদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী কাশিয়ানী উপজেলার মহেশপুর ইউনিয়নের ব্যাসপুর গ্রামের মো. হাসান শেখের বাড়ি থেকে পুলিশ জাহিদুলের ইজবাইকটি উদ্ধার করে।

তদন্ত শেষে গোপালগঞ্জ সদর থানার এসআই আজিজুর রহমান ২০১৪ সালের ২৪ ডিসেম্বর আদালতে ৫ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করলে এ মামলার বিচারকাজ শুরু হয়।

নিউজ হান্ট/এএস

সর্বশেষ