শুক্রবার, অক্টোবর ২২, ২০২১

‘চাচা কৃষি অফিসের কর্মকর্তা, টাকা দেন চাকুরী হয়ে যাবে’

আরও পড়ুন

ঠাকুরগাঁও থেকে মো: রেদওয়ানুল হক মিলন: ঠাকুরগাঁও জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরে অফিস সহায়ক (কেরানি) পদে চাকরি দেয়ার নাম করে টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে রাজিউল ইসলাম রাজুর বিরুদ্ধে। রাজু বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার কালমেঘ ডাঙ্গীপাড়া গ্রামের খলিলুর রহমানের ছেলে।

জানা যায়, রাজিউল ইসলাম রাজু সদর উপজেলার রুহিয়া ইউনিয়নের ঘণিবিষ্ঠপুর এলাকায় এক বাসায় ভাড়া থাকেন। তার চাচা কৃষি অফিসের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও চাচার অধীনে জেলায় ২০টি পদে নিয়োগ হয়েছে এমন কথা বলে একই ইউনিয়নের দেলোয়ার হোসেনের ছেলে আমির হোসেন (৩৫) দারাজ উদ্দীনের ছেলে রবিউল ইসলামসহ আরও কয়েকজনের কাছ থেকে চাকুরী দেওয়ার নাম করে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়ে পালিয়েছেন।

ভুক্তভোগীরা জানান, রাজু আমাদের বলছে যে তার চাচা জেলা কৃষি অফিসে চাকুরী করে এবং ২০টি পদ শূন্য আছে আপনারা আবেদন করেন। আমরা আবেদন করলে রাজু আমাদের কাছ থেকে লক্ষাধিক টাকা দাবি করে আমরা ঋণ করে তাকে টাকা দেই। টাকা নেয়ার কিছুদিন পর সে এলাকা থেকে পালিয়ে যায়। আমরা রাজুর ফোনে একাধিকবার ফোন করলে তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। পরে তার বাসায় গিয়ে তার বাবাকে জানালে তিনি অস্বীকার করলে আমরা বালিয়াডাঙ্গী থানায় রাজুর নামে অভিযোগ দায়ের করি।

এ ব্যাপারে রাজিউল ইসলাম রাজুর সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসি তদন্ত শফিক আহম্মেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন এসআই রহিমকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। অনুসন্ধানে জানা গেছে রাজু একজন প্রতারক। শুধু রুহিয়ায় নন বালিয়াডাঙ্গীতেও সে অনেক জনের সাথে প্রতারণা করেছে।

নিউজ হান্ট/কেএইচ

সর্বশেষ