বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২১, ২০২১

ছেলে গ্রেপ্তার, বন্ধ হলো শাহরুখের শিক্ষাবিষয়ক বিজ্ঞাপন

আরও পড়ুন

মুম্বাইয়ের প্রমোদতরীতে মাদক কাণ্ডে গ্রেপ্তার শাহরুখপুত্র আরিয়ান। আর তারপর থেকেই কটাক্ষের শিকার কিং খান। নিজের ছেলেকেই ঠিকমতো শিক্ষা দিতে পারেননি বলেই তার বিরুদ্ধে উঠছে অভিযোগ। তাই অনলাইন শিক্ষাদানকার নামী সংস্থার বিজ্ঞাপন থেকে তাকে সরিয়ে দেওয়ার দাবি উঠেছিল। শেষমেশ নেটিজেনদের দাবিই মানল ওই সংস্থা।

বিজ্ঞাপন থেকে সরিয়ে দেওয়া হল শাহরুখকে। তবে ওই সংস্থার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হিসাবেই তাকে রাখা হবে কিনা, সে বিষয়ে এখনও কিছুই জানা যায়নি।

২ অক্টোবর রাতে মুম্বাই থেকে গোয়াগামী কর্ডেলিয়া ক্রুজে (রেভ পার্টিতে অংশ নেন শাহরুখ তনয়। যাত্রী সেজে ক্রুজে চড়েন এনসিবি কর্মকর্তারা। এরপরই এনসিবির জালে ধরা পড়েন আরিয়ান খান, আরবাজ মার্চেন্ট, মুনমুন ধামেচাসহ আরও অনেকে। রাতভর জেরার পর গ্রেপ্তার করা হয় আরিয়ানকে। বর্তমানে জেল হেফাজতে রয়েছেন তিনি।

তারপর থেকে বারবারই শাহরুখের অভিভাবকত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। নিজের ছেলে ‘উচ্ছনে’ যাওয়ার পরেও কীভাবে কিং খান অনলাইন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন করতে পারেন, সে প্রশ্ন উঠতে থাকে। চাপে পড়ে যায় সংস্থাটি। শাহরুখের জন্য তাদের সংস্থার কোনো ক্ষতি হবে না তো, সেই প্রশ্নই ঘুরপাক খেতে থাকে ওই অনলাইন শিক্ষাদানের সংস্থার অন্দরে।

২০১৭ সালে অনলাইন শিক্ষাদানকারী ওই সংস্থার সঙ্গে শাহরুখের চুক্তি হয়। তারপর থেকেই ওই সংস্থার বিজ্ঞাপনে দেখা যেত তাকে। এই সংস্থার বিজ্ঞাপনের জন্য মোটা টাকাও পান শাহরুখ। নেটিজেনদের কটাক্ষের কথা মাথায় রেখে সংস্থার স্বার্থে শাহরুখের বিজ্ঞাপন বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

শিক্ষাদান সংস্থা ছাড়াও আরও বেশ কয়েকটি সংস্থার মুখ কিং খান। আরিয়ানের গ্রেপ্তারির জেরে কি ওই সংস্থাগুলির বিজ্ঞাপন থেকেও বাদ দেওয়া হবে শাহরুখকে, ছেলের গ্রেপ্তারি প্রভাব ফেলবে বাবার কেরিয়ারে, ক্রমশ জোরাল হচ্ছে সেই প্রশ্ন।

নিউজ হান্ট/কেএইচ

সর্বশেষ