রবিবার, নভেম্বর ২৮, ২০২১

টেকনাফে গোলাগুলিতে নিহত ১

আরও পড়ুন

টেকনাফ (কক্সবাজার) থেকে শেখ রাসেল: কক্সবাজার টেকনাফে বিজিবি অভিযান চালিয়ে ১ লাখ ইয়াবা ও দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় বিজিবির সাথে গুলি বিনিময়ে এক মাদক কারবারি নিহত হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নিহত মাদক কারবারি মামুন (২৩ ) মিনাবাজারের আবু সিদ্দিকের পুত্র। ১৪ নভেম্বর দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে টেকনাফ ব্যাটালিয়ন (২ বিজিবির) অধিনায়ক লেঃ কর্নেল ফয়সল হাসান খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বিজিবি জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টেকনাফ হোয়াইক্যং ইউপির জীম্নংখালী বিওপির দায়িত্বপূর্ণ হতে আনুমানিক ৫০০গজ উত্তরে ৭ নং স্লুইস গেইট সংলগ্ন এলাকা দিয়ে ইয়াবার একটি বড় চালান মিয়ানমার হতে বাংলাদেশে পাচার হতে পারে। এই সংবাদের ভিত্তিতে টেকনাফ ব্যাটালিয়ন সদর এবং অধীনস্থ জিম্বংখালী বিওপির বিশেষ টহলদল ওই এলাকায় গোপনে অবস্থান করে। তিন জন ব্যক্তিকে শূন্য লাইন অতিক্রম করে নৌকা যোগে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে দেখে তৎক্ষণাৎ বিজিবি টহল দল তাদের আটকের উদ্দেশ্যে চ্যালেঞ্জ করলে সশস্ত্র ইয়াবা পাচারকারীরা অতর্কিতভাবে টহলদলের উপর গুলি বর্ষণ করে।

সন্ত্রাসীদের গোলাবর্ষণে বিজিবির দুই সদস্য আহত হন। পরে বিজিবি কৌশলগত অবস্থান নিয়ে পাল্টা গুলি বর্ষণ করে। উভয় পক্ষের মধ্যে ৪/৫ মিনিটি গুলি বিনিময় হয়। এ সময় দুই ইয়াবা কারবারি নাফ নদীতে ডুব সাঁতার দিয়ে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে পালিয়ে যায় এবং অপর এক জন গুলিবিদ্ধ হয়। পরে গোলাগুলি থেমে গেলে স্লুইস গেইটের কিনার হতে এক জন ব্যক্তিকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার এবং একটি দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র ও খালি খোসা জব্দ করে। এছাড়া ওই এলাকায় তল্লাশি চালিয়ে দুইটি ব্যাগ হতে এক লাখ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। গুলিবিদ্ধ ব্যক্তিকে টেকনাফ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিউজ হান্ট/কেএইচ

সর্বশেষ