রবিবার, নভেম্বর ২৮, ২০২১

দ্রুত পেটের চর্বি কমায় ব্ল্যাক কফি

আরও পড়ুন

ওজন কমাতেও ব্ল্যাক কফির জুড়ি মেলা ভার। সেই সঙ্গে শরীরও রাখে চনমনে। হার্টের রোগী কিংবা ডায়াবেটিস যাদের থাকে তাদের চিনি ছাড়া ব্ল্যাক কফি খাওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়। এককাপ ব্ল্যাক কফিতে ক্যালোরির পরিমাণ থাকে মাত্র ২। ডিক্যাফেইনেটেড বীজ থেকে বানানো হলে তাতে একেবারেই ক্যালোরি থাকে না।

এছাড়াও ব্ল্যাক কফিতে ক্লোরোজেনিক অ্যাসিড নামে একটি উপাদান রয়েছে, যা ওজন কমাতে সাহায্য করে। রাতের খাবার খাওয়ার পর এককাপ ব্ল্যাক কফি খেলে শরীরে ক্লোরোজেনিক অ্যাসিড গ্লুকোজ উৎপাদনে বাধা দেয়। ফলে নতুন ফ্যাট কোষ তৈরি হয় না।

শুধুমাত্র ক্লোরোজেনিক অ্যাসিডই যে ওজন কমানোর জন্য ব্ল্যাক কফিকে আদর্শ করে তুলেছে তা নয়। ব্ল্যাক কফিতে বিভিন্ন অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস আছে যা দ্রুত ওজন কমানোর জন্য সহায়ক।

ব্ল্যাক কফিতে থাকে ক্যাফিন যা খুব দ্রুত বিপাকের ক্রিয়াকলাপ বাড়ায় এবং আমাদের শরীরের শক্তির জোগান দেয়। ফলে খিদে কম পায়। তবে চিনি বা অন্যান্য মিষ্টি যুক্ত করে একে লো-ক্যালোরি পানীয় বানিয়ে তুলবেন না।

ব্ল্যাক কফির সঙ্গে যদি সামান্য মধু আর লেবু যোগ করে খেতে পারেন, তাহলে যেমন স্বাদ বাড়ে তেমনই তা ওজন কমাতেও সাহায্য করে। এমনিতেই লেবু আর মধু ওজন কমানোর জন্য সহায়ক। তার সঙ্গে যদি যুক্ত হয় ব্ল্যাক কফি, তাহলে ওজন কমবেই।

একান্তই দুধ দিয়ে খেতে হলে আমন্ড কিংবা সোয়া মিল্ক দিয়ে খান। তাতে শরীরও ভালো থাকবে, ওজনও কমবে। ব্ল্যাক কফি খেতে পারেন গুড় দিয়েও। তাতে ফ্যাটও জমবে না। রক্তের শর্করাও থাকবে নিয়ন্ত্রণে।

কখন খাবেন
সকালে খালি পেটে ব্ল্যাক কফি না খাওয়াই ভালো। লেবু-মধু মিশিয়ে এই কফি খাওয়ার আদর্শ সময় হলো সন্ধ্যাবেলা। কোনো ইভিনিং স্ন্যাকস এরপর যদি লেবু-মধু মেশানো ব্ল্যাক কফি খান তাহলে ওজন কমবে তাড়াতাড়ি। আর খেতে পারেন রাতের খাবারের পর। এতে হজমও ভালো হবে। অতিরিক্ত ফ্যাট জমবে না। অনেকেই বলেন, রাতে ব্ল্যাক কফি খেলে ঘুম আসে না। কিন্তু এক্ষেত্রে সমস্যা হয় না। কফির সঙ্গে মধু আর লেবুর রস মেশালে হজম ভালো হয়।

যেভাবে বানাবেন
এক কাপ পানি গরম করুন। তার মধ্যে রোস্টেড কফি নিয়ে কিছুক্ষণ ফুটিয়ে নিন। এবার কাপে সামান্য গোলমরিচের গুঁড়া আর লেবু-মধুর মিশ্রণ বানিয়ে নিন। কফি ছেঁকে নিন। ৫ মিনিট রেখে একটু ঠান্ডা করে তবেই খান। একদম গরম খাবেন না। মধুর বদলে ব্রাউন সুগারও ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়াও কফির সঙ্গে দু’এক টুকরা দারচিনি দিয়েও ১০ মিনিট ফোটাতে পারেন। তারপর মধু-লেবুর মিশ্রণে মিশিয়ে খেলেও কাজে আসবে।

নিউজ হান্ট/কেএইচ

সর্বশেষ