বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২১, ২০২১

নাটোরে খামারে অভিযান, ৭ পাখি উদ্ধার

আরও পড়ুন

নাটোর থেকে মোহাম্মাদ সুফি সান্টু: নাটোরের একটি পাখির খামারে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল মালেক এর নেতৃত্বে রাজশাহী বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ যৌথ অভিযান পরিচালনা করে ৫টি পাতি সরালি ও ২টি ময়ূর উদ্ধার করা হয়েছে।

শহরতলীর তেলকুপির পাচানিপাড়া এলাকার একটি খামার থেকে এসব পাখি উদ্ধার করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বন্যপ্রাণী (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা) আইন, ২০১২ অনুযায়ী ওই খামার মালিক তরিকুল ইসলামকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা দণ্ড প্রদান করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ) জিল্লুর রহমান,বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ রাজশাহীর বন্যপ্রাণী ও জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ কর্মকর্তা রাহাত হোসেন, বন্যপ্রাণী ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ রাজশাহীর বন্যপ্রাণী পরিদর্শক মোঃ জাহাঙ্গীর কবির, রাজশাহীর ওয়াইল্ডলাইফ রেঞ্জার মোহাম্মদ হেলিম রায়হান, নাটোর সামাজিক বনবিভাগের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সত্যেন্দ্রনাথ সরকার, পরিবেশ ও গণমাধ্যম কর্মী রাশেদ আলম।

রাজশাহী বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ ও বিবিসিএফ সূত্র জানা যায়, নাটোরের তেলকুপির পাচানিপাড়া এলাকা অসংরক্ষিত ভাবে গড়ে তোলা হয়েছে খামারটি। চারিদিকে বন-জঙ্গল আর আবাদি এলাকায় এই খামার। খামারটি গড়ে তোলেন তেলকুপির পাচানিপাড়া এলাকায় মোঃ জয়নাল খানের ছেলে, মোঃ তরিকুল ইসলাম (২৬) খামারে ছিলো না কোন কোন সঠিক ব্যবস্থাপনা,নেই কোন বৈধ কাগজপত্র।

বিবিসিএফ এর দপ্তর সম্পাদক ফজলে রাব্বী বলেন, তথ্যের ভিত্তিতে এই অভিযান করা হয়। পরবর্তীতে বিষয়টি নজরদারিতে রাখা হবে। বন্যপ্রাণী সংরক্ষণে দেশব্যাপী কাজ করছে,বিবিসিএফ এর সদস্যরা। বন্যপ্রাণী নিয়ে নিয়ে অবৈধ কার্যক্রম বন্ধে এমন অভিযান অব্যাহত থাকবে। পরে উদ্ধারকৃত পাতি সরালিগুলো নাটোর উত্তরা গণভবনের জলাশয়ে অবমুক্ত করা হয়।

নিউজ হান্ট/কেএইচ

সর্বশেষ