সোমবার, অক্টোবর ১৮, ২০২১

পটকা বানানোর চেষ্টা কিশোরের, উড়ে গেলো হাতের তিন আঙুল

আরও পড়ুন

নাটোর থেকে মোহাম্মাদ সুফি সান্টু: নাটোরে ইউটিউব দেখে পটকা বানাতে গিয়ে বিস্ফোরণের ঘটনায় রিপন আলী (১৫) এক স্কুলছাত্র আহত হয়েছে। এসময় তার বাঁ হাতের তিন আঙুলের কিছু অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

মঙ্গলবার দিবাগত রাতে ওই ছাত্রের নানার বাড়ি লালপুর উপজেলার বিলমাড়িয়া গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। আহত রিপন বিলমাড়িয়া উচ্চবিদ্যালয়ে ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র।

পুলিশ ও গ্রামবাসী সূত্রে জানা যায়, রিপন আলী রংপুর সদরের সাগর আলীর ছেলে। তার মা রিমা বেগম বাবার বাড়ি বিলমাড়িয়া গ্রামে থাকেন। মঙ্গলবার তিনি পাবনার ঈশ্বরদীর একটি জুট মিলে কাজ করতে যান। বাড়িতে থাকা ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ুয়া ছেলে রিপন রাত ৯টার দিকে নিজের ঘরে বসে ইউটিউব দেখে দেশলাইয়ের বারুদ দিয়ে পটকা বানাচ্ছিল। একপর্যায়ে বারুদের বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণে তার বাঁ হাতের মাঝের তিনটি আঙুলের মাথা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। শব্দ শুনে আশপাশের লোকজন ওই ঘরে ছুটে গিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করেন।

আহত রিপনের নানা কবির শেখ বলেন, তার নাতি বিলমাড়িয়া উচ্চবিদ্যালয়ে ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ালেখা করে। রিপন তার দুই বন্ধুকে নিয়ে মজা করার জন্য পটকা বানানোর চেষ্টা করছিল। হঠাৎ বিস্ফোরণ ঘটে। ঘটনার পরপরই রিপনকে লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক কর্মকর্তা সুরুজ্জামান শামীম বলেন, রিপনের আঙুল কাটার প্রয়োজন হতে পারে। চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

লালপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ফজলুর রহমান জানান, ঘটনাটি শোনার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে, ছেলেটি বন্ধুদের সঙ্গে মজার ছলে পটকা বানানোর চেষ্টা করছিল। তবুও বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

নিউজ হান্ট/কেএইচ

সর্বশেষ