বুধবার, অক্টোবর ২৭, ২০২১

‘পরমাণু শক্তি শান্তির জন্য ব্যবহার করছি’

আরও পড়ুন

বাংলাদেশ পরমাণু শক্তিকে শান্তির জন্য ব্যবহার করছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ রোববার (১০ অক্টোবর) নির্মাণাধীন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে প্রথম ইউনিটের রিঅ্যাকটর প্রেসার ভেসেল স্থাপনের কাজ উদ্বোধনকালে তিনি এ কথা বলেন।

এর আগে, প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন সাপেক্ষে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে প্রথম ইউনিটের রিঅ্যাকটর প্রেসার ভেসেল স্থাপন করা হয়। রিঅ্যাকটর প্রেসার ভেসেল থেকেই পারমাণবিক জ্বালানি থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হবে।

বেলা পৌনে ১২টার দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

এসময় তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ পরমাণু বিশ্বে প্রবেশ করেছে এবং আমরা পরমাণু শক্তিকে শান্তির জন্য ব্যবহার করছি। আমরা পারমাণবিক শক্তিকে কাজে লাগিয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদনের মাধ্যমে দেশের উন্নয়নকে আরও এগিয়ে নিতে চাই এবং সে লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি।’

রাশিয়ার সহযোগিতায় আইএইএ’র গাইডলাইন অনুসরণ করে নির্ধারিত সময়েই দেশের প্রথম এই পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের কাজ শেষ হবে বলে জানান তিনি।

প্রকল্প সূত্র জানায়, নিরাপত্তা নিশ্চিত করে রাশিয়ান প্রযুক্তিতে ৩+ জেনারেশনের ভিভিইআর-১২০০ মডেলের দুটি রিঅ্যাকটর বসানো হবে।

রাশিয়ার সহযোগিতায় পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার রূপপুরে ১২০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের ক্ষমতা সম্পন্ন দুটি পারমাণবিক চুলা স্থাপন করা হবে, যা থেকে ২৪০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপন্ন হবে। প্রায় ১ লাখ ১৩ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে দেশের সর্ববৃহৎ উন্নয়ন প্রকল্পের আর্থিক এবং কারিগরি সহযোগিতা দিচ্ছে রাশিয়া।

সূত্র আরও জানায়, প্রকল্পের ইউনিট-১ বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু করবে ২০২৩ সালে এবং ইউনিট-২ এর উৎপাদন শুরু হবে ২০২৪ সালে।

নিউজ হান্ট/আরকে

সর্বশেষ