রবিবার, অক্টোবর ১৭, ২০২১

ফেসবুক বন্ধের ৬ ঘন্টায় কী কী ঘটলো?

আরও পড়ুন

মাত্র কয়েকঘণ্টা, আর তাতেই ৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বেশি খোয়ালেন মার্ক জাকারবার্গ! ব্লুমবার্গের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিশ্বব্যাপী বিভ্রান্তির কারণে ফেসবুকের স্টক কম গিয়েছে। আর সে কারণেই জাকারবার্গও বিলিয়নিয়ারদের তালিকায় পঞ্চম স্থানে নেমে এসেছেন।

বিশ্বব্যাপী প্রায় ৬ ঘণ্টা ফেসবুক হোয়াটসঅ্যাপ, ইনস্টাগ্রাম-এর সেবা বন্ধ ছিল। সোমবার (৪ অক্টোবর) দিবাগত রাত সোয়া ৯টা থে‌কে (বাংলা‌দেশ সময়) মধ্যরাত সাড়ে ৩টা পর্যন্ত এসব সামাজিকমাধ্যমের সার্ভার ডাউন ছিল।

এ ঘটনায় প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গের ব্যক্তিগত সম্পদের ক্ষতি হয়েছে ৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বেশি।

শুধু তাই নয়, কয়েক ঘণ্টার অচলাবস্থা প্রভাব ফেলেছে কোম্পানিটির শেয়ারেও। ফেসবুকের শেয়ারের দাম কমে গেছে ৪.৯ শতাংশ। ফলে সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি থেকে হিসাব করলে দাম কমেছে প্রায় ১৫ শতাংশ।

অন্যদিকে শেয়ারের দর কমে যাওয়ায় বিশ্বের শীর্ষ ধনীদের তালিকাতেও পিছিয়ে গেছেন জাকারবার্গ। সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গের হিসাবে বর্তমানে তার সম্পদের মূল্য দাঁড়িয়েছে ১২১.৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। বিলিয়নিয়ার ক্লাবে তার অবস্থান এখন বিল গেটসের নিচে ৫ নম্বরে।

ওয়েবসাইট মনিটরিং গ্রুপ ডাউনডিটেক্টর জানিয়েছে, বিশ্বব্যাপী এক কোটির বেশি মানুষ ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ ও ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারে সমস্যার কথা জানিয়েছেন।

এক টুইট বার্তায় ফেসবুক লেখে, “বিশ্বজুড়ে বিপুল পরিমাণ মানুষ ও ব্যবসায়িক কমিউনিটি যারা আমাদের ওপর নির্ভরশীল, তাদের কাছে আমরা দুঃখিত। আমরা অ্যাপ ও সেবা চালুর জন্য কঠোর পরিশ্রম করছি এবং তারা অনলাইনে পুনরায় ফিরে এসেছে জানতে পেরে খুশি। আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

ইনস্টাগ্রাম টুইট বার্তায় জানিয়েছে, ইনস্টাগ্রাম এখন ফিরে এসেছে কিন্তু ধীরে চলছে। আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য ধন্যবাদ। দেরি হওয়ার জন্য দুঃখিত!

সেবা স্থগিত থাকায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গও। এ নিয়ে জাকারবার্গ ফেসবুকে লিখেন, ফেসবুক, ইস্টাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপ এবং মেসেঞ্জার এখন সচল হয়েছে। আজকের অনাকাঙ্ক্ষিত এ ঘটনার জন্য আমি দুঃখিত।

তিনি আরো বলেন, আমি এটাও জানি, মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষায় আপনারা ফেসবুকের সঙ্গে কতটা সম্পৃক্ত।

এত দীর্ঘ সময় ধরে সার্ভার ডাউন হওয়া ঘটনা বিরল। সর্বশেষ ২০১৯ সালে ফেসবুক ও অন্যান্য অ্যাপে ১৪ ঘণ্টার মতো এ ধরনের সমস্যা হয়েছিল।

এদিকে ফেসবুক হোয়াটসঅ্যাপ, ইনস্টাগ্রাম-এর সেবা বন্ধ থাকায় ফেসবুক নিয়ে ট্রল-মিমি’র বন্যা বয়ে যায় টুইটারে। অনেককেই এসময় টুইটারে ফেসবুক এবং ফেসবুক ব্যবহারকারীদের নিয়ে তৈরি ট্রল/মিমি শেয়ার করতে দেখা যায়।

সর্বশেষ তথ্যমতে, সার্ভার ডাউনের কারণ হিসেবে এক ব্লগ পোস্টে ফেসবুক জানিয়েছে, “সমস্যার সমাধান করতে গিয়ে আমাদের ইঞ্জিনিয়ারিং দল জানতে পেরেছে যে, ব্যাকবোন রাউটারে কনফিগারেশন পরিবর্তনের কারণে এমনটি হয়েছে, যা আমাদের ডেটা সেন্টারের মধ্যে নেটওয়ার্ক ট্র্যাফিককে সমন্বয় করে।”

নিউজ হান্ট/এএস

সর্বশেষ