রবিবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২১

বিশ্বের প্রথম ‘অলাভজনক শহর’ হচ্ছে সৌদিতে

আরও পড়ুন

বিশ্বের প্রথম ‘অলাভজনক’ শহর গড়ে তোলার ঘোষণা দিয়েছে সৌদি আরব। স্থানীয় সময় গতকাল রোববার (১৪ নভেম্বর) বিকেলে সৌদি যুবরাজ মুহাম্মদ বিন সালমান এক লিখিত বিবৃতিতে এ ঘোষণা দেন। তার নামেই শহরের নামকরণ করা হবে।

সৌদি আরবের সরকারি বার্তা সংস্থা সৌদি প্রেস এজেন্সি (এসপিএ) জানায়, প্রস্তাবিত শহরটি গড়ে উঠবে রাজধানী রিয়াদের পশ্চিমে ওয়াদি হানিফার কাছে। শহরের আয়তন হবে ৩.৪ বর্গকিলোমিটার। এই শহরে থাকবে একাডেমি, স্কুল, কলেজ, সম্মেলন কেন্দ্র ও বিজ্ঞান জাদুঘর। এ ছাড়া একটি সৃজনশীল কেন্দ্র নির্মাণ করা হবে, যেখানে বিজ্ঞান এবং নতুন প্রজন্মের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা নিয়ে গবেষণার সুযোগ করে দেওয়া হবে। তাছাড়া, শহরের ৪৪ শতাংশেরও বেশি জায়গা হবে সবুজ ও উন্মুক্ত।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বৈশ্বিকভাবে শহরটি অলাভজনক সেক্টরের উন্নয়নের মডেল হিসেবে গড়ে তোলা হবে।

এসপিএকে উদ্ধৃত করে অনলাইন এমিরেটস নিউজ এজেন্সি জানায়, স্থানীয় এবং আন্তর্জাতিক অলাভজনক প্রতিষ্ঠানগুলোর তরুণ বা যুবকদের কাজের জন্য এটি হবে একটি মডেল। এটি হবে বৈশ্বিক পর্যায়ে অলাভজনক উন্নয়নের একটি মডেল।

আরব নিউজের খবরে বলা হয়, ক্রাউন প্রিন্স বলেছেন, এমন শহর এটাই প্রথম হবে সৌদি আরবে। এর মধ্যদিয়ে মোহাম্মদ বিন সালমান মিস্ক ফাউন্ডেশনের লক্ষ্য অর্জনে অবদান রাখবে এই শহর। এতে সহায়তা দেয়া হবে উদ্ভাবন, উদ্যোক্ত এবং ভবিষ্যত মানসম্মত নেতৃত্বকে।

এতে আরও বলা হয়, যুব সমাজকে প্রশিক্ষণ ও সম্ভবনাময় কাজ করার মধ্যদিয়ে এই অলাভজনক কাজকে সংজ্ঞায়িত করা হবে। এখান থেকে এমন সব সুবিধা দেয়া হবে, যা আকর্ষণীয় কর্মপরিবেশ সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখবেন।

এই শহরের নাম হবে প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান নন-প্রফিট সিটি, যা ডিজিটাল টুইন মডেল বাস্তবায়ন করবে। স্বাগত জানাবে শিক্ষাবিদ, কলেজ, মিস্ক স্কুলকে, কনফারেন্স সেন্টার হিসেবে কাজ করবে। কাজ করবে বিজ্ঞানের একটি জাদুঘর হিসেবে। বিজ্ঞান ও নতুন প্রজন্মের প্রযুক্তি খাত- যেমন কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, রোবোটিক্সের মতো প্রযুক্তিতে উচ্চাকাঙ্খী উদ্ভাবনীকে সমর্থন দেবে এই সেন্টার।

নিউজ হান্ট/আরকে

সর্বশেষ