বুধবার, ডিসেম্বর ১, ২০২১

বেদানার দানায় দানায় গুণ

আরও পড়ুন

একটা ফলেই হরেক গুণ। বিভিন্ন রোগ নিরাময়ে বেদানার জুড়ি মেলা ভার। এমনই কথা বলছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। নিয়মিত বেদানা খেলে শরীরে রক্তের অভাব পূরণ হয়। শুধু তাই নয়, বেদানার ফলে স্মৃতিশক্তি বাড়ে। স্বাস্থ্যের সার্বিক উন্নতি তো বটেই, ত্বকের জন্য উপকারী বেদানা।

বিশেষজ্ঞদের মতে, বেদানায় প্রচুর পরিমাণে ফাইবারসহ ভিটামিন কে, সি ও ভিটামিন বি রয়েছে। এছাড়াও আয়রন, পটাশিয়াম, জিঙ্ক ও ওমেগা-৬ ফ্যাটি অ্যাসিডের মতো প্রচুর মিনারেল উপস্থিত বেদানাতে। এগুলি শরীরকে চাঙ্গা রাখতে একান্ত উপকারী। বেদানার বীজেও রয়েছে উপকার। বেদানার শরবত করেও খেতে পারেন।

গর্ভবতী মহিলাদের জন্য রক্তের প্রয়োজন মেটাতে বেদানা খুবই কার্যকর। শরীরে পানির মাত্রাও বজায় রেখে ডিহাইড্রেশন রোধ করে। মাতৃগর্ভে বাড়তে থাকা শিশুর পুষ্টির জন্যও বেদানা অপরিহার্য। এছাড়াও অ্যানিমিয়া বা রক্তাল্পতায় যারা ভুগছেন, তাদের দেহে রক্তের ঘাটতি পূরণ করতে বেদানা অসীম কার্যকর। বেদানায় থাকা আয়রন এক্ষেত্রে ব্যাপক উপকারী।

হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতেও চিকিৎসকেরা বেদানা খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন। শারীরিক দুর্বলতা দূর করতে, এমনকী যৌন ইচ্ছাশক্তি বৃদ্ধিতেও পুরুষদের জন্য বেদানা উপকারী। ত্বকের উপকারেও বেদানার ভূমিকা অপরিহার্য। ত্বকের কোষের গঠনে উপকারী বেদানা। যার ফলে ত্বকের বলিরেখা, কালো ছোপ দূর হয়ে উজ্জ্বলতা বাড়ে।

সাধারণত সকালেই যেকোনো ফল খাওয়া শরীরের পক্ষে ভালো। বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ অনুযায়ী, ব্রেকফাস্টের আধ ঘণ্টা আগে অথবা ব্রেকফাস্টের সঙ্গে বেদানা খেতে পারেন। সকালে বেদানা খেলে সারাদিনের জন্য এনার্জি পাওয়া যায়।

নিউজ হান্ট/কেএইচ

সর্বশেষ